বাংলা ভাষা

এলো আবার ফেব্রুয়ারী

মাসুদ রানা

ইংরেজি ফেব্রুয়ারীঃ বাঙালীর ভাষা-ভণ্ডামোর মাস

গ্রিগোরিয়ান বা ক্রিশ্চিয়ান ক্যালণ্ডারের দ্বিতীয় মাস ফ্রেব্রুয়ারীর আজ শুরু। এই পঞ্জিকা ও মাসগুলোকে বাঙালী-সাধারণ ইংরেজি পঞ্জিকা ও মাস বলেই জানেন। কারণ, বাঙালী জাতি তার ঔপনিবেশিক ইংরেজ শাসকদের মাধ্যমেই এই পঞ্জিকার সাথে পরিচিত হয়। ...»

জাতি-ভাষা-লিপি ও নাগরি প্রসঙ্গ (১)

মাসুদ রানা

একটি জনপ্রিয় ধারণাকে প্রশ্নবিদ্ধ ও বিধ্বস্ত করতে লিখছি আজকের এ-লেখা। জানি, দীর্ঘ-কালের লালিত বিশ্বাসে আঘাত পেলে বিক্ষুব্ধ হবেন অনেকেই। অবশ্য, তাতে আক্ষেপের কিছু নেই। তবে প্রত্যাশা থাকবে, তাঁদের প্রতিক্রিয়া যেনো ব্যক্তি-কেন্দ্রিক না হয়ে বিষয়-কেন্দ্রিক থাকে, যেভাবে থাকা উচিত বুদ্ধিবৃত্তিক বৈজ্ঞানিক বিতর্কে। আর তাতে বিষয় সম্পর্কে পাঠকের বোধ সমৃদ্ধ হয়, যা গালাগালিতে হয় না। ...»

অন্তিম অন্ধকারঃ যার অন্ন জোটে বর্ণমালা ব্যবহার করে, সে-ই জানে না ‘বর্ণমালা’ বলে কাকে

মাসুদ রানা

রবীন্দ্রনাথ বাঙালীকে যতোটা চিনেছিলেন, সম্ভবতঃ আর কেউ চেনেননি এতোটা। এই লণ্ডনে এসে তিনি নাকি এক ‘শিক্ষিত’ বাঙালীকে বলেছিলেন, ‘ইংরেজি তো শিখতে পারননি, কিন্তু বাংলাটাও ভুলে গেলেন!’ মাতৃভাষাটা হওয়া উচিত শিক্ষা ও জ্ঞানের ভিত্তি - এটিই হবে সম্ভবতঃ রবীন্দ্রনাথের পরিহাসিক আক্ষেপের অন্তর্গত বাণী-চিরন্তনী। বিজ্ঞজনের সে-কথাই বাণী-চিরন্তনী হয়, যা যুগে-যুগে প্রযোজ্য। বাঙালীর জন্য বাংলা ভুলে যাবার প্রবণতা এখনও প্রযোজ্য। ...»

Syndicate content