• 'যুদ্ধাপরাধীদের বিচার-কাজ ত্বরান্বিত করতে প্রবাসীদের ভুমিকা ও করণীয়' শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
    DSC05340.JPG

    পূর্ব-লণ্ডনে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ত্বরান্বিত করতে আলোচনা সভা

    প্রেস বিজ্ঞপ্তি - ৩১ জুলাই ২০১২, মঙ্গলবারঃ  গত ২৬শে জুলাই বিকাল ৪টায় পূর্ব লণ্ডনের মন্টিফিউরী সেন্টারে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারকাজ ত্বরান্বিত করতে প্রবাসীদের ভুমিকা ও করণীয়' শীর্ষক আলোচনা-সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা করেছেন সেক্টর কমাণ্ডার্স ফোরামের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব সাংবাদিক হারুন হাবীব, সিলেট থেকে নির্বাচিত সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরি, কবি শামীম আজাদ, ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইমস স্ট্র্যাটেজি ফোরাম এর সদস্য রায়হান রশিদ, 'যুদ্ধাপরাধ বিচারমঞ্চ'র প্রধান সমন্বয়কারী খালেদুর রহমান শাকিল এবং যুক্তরাজ্যে অবস্থিত বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা। মনজুরুল আজিম পলাশের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেছেন আনসার আহমেদ উল্লাহ।

    খালেদুর রহমান শাকিল যুদ্ধাপরাধ বিচার মঞ্চ গড়ে ওঠার পটভূমি আলোচনা করেন। তিনি বলেন, 'যুদ্ধাপরাধীদেরকে যেনো আইনের আওতায় এনে একটি সঠিক বিচারকাজ সম্পন্ন করা যায়, সেই লক্ষ্যে আমরা সহায়ক শক্তি হিসাবে কাজ করবো'। রায়হান রশিদ বলেন, 'নাগরিক সমাজের সকল স্তর থেকে চলমান বিচার প্রক্রিয়াটিকে সহায়তা করতে হবে, এর বিপরীতে অন্যায্য সমালোচনাগুলোর প্রত্যুত্তর নাগরিক সমাজকেই দিতে হবে, কিন্তু সেটা কার্যকরভাবে করতে হলে সবার আগে প্রয়োজন হলো এই বিচার প্রক্রিয়াটিকে সঠিকভাবে বুঝা এবং অনুধাবন করা'।

    চলমান আন্তর্জাতিক অপরাধের বিচার প্রক্রিয়াকে আইনগত দিক থেকে কারিগরি সহায়তা, পাশাপাশি তথ্য প্রমাণ ও ডকুমেন্টেশন সহায়তা প্রদানের কাজে আইসিএসএফ নেটওয়ার্কের স্বেচ্ছাসেবক টীমগুলো গত তিন বছর ধরে সক্রিয়। শামিম আজাদ বলেন, 'বিলেতের কমিউনিটিকে এই বিষয়ে সচেতন ও সংগঠিত করতে আমরা কাজ করে যাবো'।

    সাংসদ সফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, 'যুদ্ধাপরাধীদের বিচার সুসম্পন্ন করতে বর্তমান সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ'। হারুন হাবিব বলেন, 'এ-বিচার প্রক্রিয়ার যেমন আইনগত দিক আছে তেমনি এর সামাজিক দিকও আছে, যা কম গুরত্বপূর্ণ নয়। প্রবাসীদের উচিত এই ব্যাপারে সবসময় উচ্চকিত থাকা'।

    এই বিচার কাজকে ত্বরান্বিত করতে প্রবাসীরা ধারাবাহিকভাবে কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাবেন বলে অনুষ্ঠানে প্রত্যয় প্রকাশ করা হয়। কমিউটির নেতৃস্থানীয় ব্যাক্তিবর্গ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। মুক্তালোচনায় অংশ নিয়েছেন নিখিলেশ চক্রবর্তী, মাহমুদ এ রউফ, সাহাব উদ্দিন আহমেদ বেলাল, লোকমান আহমেদ, ইসহাক কাজল, হারুন অর রশিদ, মুজিবুল হক মনি জাসদ, হেলাল রহমান, খলিল কাজী, আবু মুসা হাসান, কয়সার সৈয়দ, তসলিমা মুন শেখ, ফয়জুল ইসলাম, আরিফুর রহমান, ফয়েজ আহমেদ, ফয়েজ খান তৌহিদ, সমর সাহা, বুলবুল আহমেদ, আহমেদ নুরুল টিপু, বুলবুল হাসান, আনিসুর রহমান আনিস প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন