• অস্থায়ীভাবে ঋণ-সীমা বৃদ্ধিঃ খেলাপি হওয়া এড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, খুলছে সরকারী পরিষেবা
    usa_shutdown_2013_ends.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১৭ অক্টোবর ২০১৩, বৃহস্পতিবারঃ  গতরাতে যুক্তরাষ্ট্রের ডেমৌক্র্যাট ও রিপাবলিকান পার্টির সমঝোতায় রাষ্ট্রীয় ঋণ-সীমা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে টানা ১৬দিন পর যুক্তরাষ্ট্রের 'গভর্ণমেণ্ট শাট-ডাউন' বা কেন্দ্রীয় সরকারী পরিষেবাগুলো আংশিকভাবে বন্ধ থাকার অচলাবস্থার অবসান ঘটেছে। এ-সমঝোতা না হলে আজই শেষ হয়ে যেতো ব্যয়-নির্বাহের তহবিল - তাতে ঋণ-খেলাপিতে পরিণত হতো দেশটি।

    'ওবামাকেয়ার' নামে পরিচিত এফৌর্ডেবল কেয়ার এ্যাক্টের বিরোধিতা করে রিপাবলিকান পার্টি দাবি করে ঐ প্রকল্পের অর্থ বরাদ্দ বাতিল করতে। তাতে প্রেসিডেণ্ট ওবামা সাড়া না দেয়ায় নতুন অর্থবছরের বাজেট আটকে দেয় রিপাবলিকানরা, ফলে পয়লা অক্টোবর থেকে অর্থাভাবে প্রায় আট লাখ সরকারী কর্মীকে বিনা-বেতনে আবশ্যিকভাবে ছুটি দেয়া হয়, ফলে বন্ধ হয়ে যায় কেন্দ্রীয় সরকারের বেশিরভাগ পরিষেবা।  উল্লেখ্য, ওবামাকেয়ারের উদ্দেশ্য হচ্ছে সকল নাগরিকের ন্যুনতম স্বাস্থ্য-সেবা নিশ্চিত করা। 

    দু-সপ্তার বেশি সময় ধরে তীব্র দরকষাকষির পর গতরাতে রিপাবলিকান পার্টি শেষ পর্যন্ত তাদের মূল দাবি থেকে সরে এসে জানুয়ারী পর্যন্ত ঋণ-সীমা বাড়াতে সম্মত হয়। এ-সম্পর্কিত একটি বিল প্রথমে সিনেটে ৮১-১৮ ভৌটে পাস হয়ে হাউজ অফ রিপ্রেসেণ্টেটিভে আসে, সেখানেও ২৮৫ - ১৪৪ ভৌটে পাস হয়ে যায়। মাঝরাতে প্রেসিডেণ্ট ওবামা বিলটিতে স্বাক্ষর করেন।

    তবে বিশ্লেষকরা বলছেন এ-পরিস্থিতির পুনরাবৃত্তি ঘটতে পারে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে। যুক্তরাষ্ট্র যদি ঋণ খেলাপি হয় তবে বিশ্ব অর্থনীতিতে ব্যাপক মাত্রার বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে বলে সতর্ক করেছেন তারা। তবে গতরাতের সমঝোতার পর আজ যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য বৃহৎ শেয়ারবাজার চাঙ্গা হয়েছে, গত কয়েক সপ্তা ধরে যা অস্থিতিশীল ছিলো।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন