• আমার দেশ সংবাদে প্রবাসী বিপদগ্রস্তঃ নিরীহ জাফর ইমামের ছবিতে ব্লগার আরিফুরের নাম
    zafar_imam_amardesh_exclusive.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৩, রোববারঃ  [একান্ত প্রতিবেদন] বাংলাদেশের দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ছাপানো এক সংবাদে ভুল ছবির কারণে বিপদে পড়েছেন ব্রিটেন-প্রবাসী একজন বাংলাদেশী। আরিফুর রহমান নামের একজন ব্লগারের নামে জাফর ইমাম নামীয় অন্য এক ব্যক্তির ছবি ছাপিয়েছে কাগজটি। লণ্ডন মেট্রোপলিটান পুলিসকে ঘটনাটি অবহিত করা হয়েছে বলে ইউকেবেঙ্গলি.কমকে আজ টেলিফৌনে জানিয়েছেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এ-নাগরিক।

    এ-সপ্তাহে দৈনিক আমার দেশের প্রিণ্ট ও ইণ্টারনেট সংস্করণে নাস্তিক্যবাদী কয়েকজন ব্লগ-লেখকের ব্যক্তিগত পরিচয় ও লেখালেখির উদ্ধৃতি দিয়ে কয়েকটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। ২০শে ফেব্রুয়ারী তারিখে প্রকাশিত "ব্লগে নাস্তিকতার নামে কুৎসিত অসভ্যতা" শিরোনামের প্রতিবেদনে আরিফুর রহমান ও অন্য কয়েকজন ব্লগারের কর্মকাণ্ডের কঠোর সমালোচনা করা হয়। সে-প্রতিবেদনে বলা হয় যে, "...শুরু হয় ইসলাম, আল্লাহ, রাসুল (সা.), বিভিন্ন সাহাবি, নবীকে জড়িয়ে নোংরা আক্রমণ। যার নেতৃত্ব দেয় প্রবাসী নাস্তিক ব্লগার আরিফুর রহমান"। সে-প্রতিবেদনের সাথে "রহস্যময় ব্লগার আরিফ" ক্যাপশন দিয়ে জুড়ে দেয়া হয় কথিত আরিফুর রহমানের ছবি।

    ২২শে ফেব্রুয়ারী অনুরূপ আরেকটি প্রতিবেদনে - যার শিরোনাম ছিলো "ধর্ম ও আদালতের অবমাননা করছে ব্লগারচক্র" - আবারও ছাপা হয় একই ছবি। এবারও ব্লগার আরিফুর রহমানের নামে।

    কিন্তু জাফর ইমাম দাবি করেছেন যে, প্রকাশিত ছবিটি মোটেও আরিফুরের নয় - ছবিটি তাঁর নিজের। নিজেকে 'মুসলমান' পরিচয় দিয়ে তিনি জানিয়েছেন যে, তিনি ব্লগ লিখেন না।

    প্রকাশিত প্রতিবেদনের প্রতিবাদ জানিয়ে জাফর ইমাম ইতোমধ্যেই 'আমার দেশ' পত্রিকাতে ইমেইল করেছেন। তিনি ইউকেবেঙ্গলিকে জানিয়েছেন যে, প্রতিবাদ-ইমেইলে তাঁর 'ছবির উৎস ও অনুমতি ছাড়া ব্যবহারের কারণ' জানতে চেয়েছেন। তিনি পত্রিকাটির কাছে 'ক্ষমা প্রার্থনা এবং সচিত্র প্রতিকারমূলক সংশোধনী ছাপানোর' দাবি করেছেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত আমার দেশের তরফ থেকে কোন সাড়া পাননি তিনি। ইমাম জানিয়েছেন, দুয়েক দিনের মধ্যে এর প্রতিকারে আমার দেশ ব্যবস্থা না নিলে, পত্রিকাটির বিরুদ্ধে মামলা করবেন তিনি।

    ইউকেবেঙ্গলি.কমকে জাফর ইমাম বলেছেন যে, লণ্ডন মেট্রোপলিটান পুলিসের সাইবার ক্রাইম ইউনিট এ-মুহূর্তে বিষয়টি তদন্ত করছে। তবে তদন্তের স্বার্থে এর চেয়ে বেশি কিছু জানাতে তিনি অপারগতা প্রকাশ করেন।

    উল্লেখ্যঃ গত ১৫ ফেব্রুয়ারী রাতে ঢাকায় আহমেদ রাজিব হায়দার নামের একজন ব্লগারকে তাঁর গলা কেটে হত্যা করা হয়। রাজিবকে নাস্তিক বলে আখ্যায়িত করা হয়েছে। তাঁর পরিবার ও বন্ধুরা তাঁর নির্মম মৃত্যুর পেছনে জামায়াতে ইসলামীর হাত রয়েছে বলে তাৎক্ষণিকভাবে সন্দেহ করেছেন, যদিও জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে এ-অভিযোগ ভিত্তিহীন ও ষড়যন্ত্রমূলক বলে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।

     

    কপিরাইটঃ এ-সংবাদটি পুনরুৎপাদন করতে আগাম অনুমতির প্রয়োজন নেই, তবে উৎস ইউকেবেঙ্গলি.কম কিংবা লিঙ্ক http://portal.ukbengali.com/node/1468 উল্লেখ করা বাঞ্ছনীয়।


     

     

    সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ ও বিশ্লেষণঃ

     

পাঠকের প্রতিক্রিয়া

বাংলাদেশে যে অস্থিতিকর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে সবগুলোর নাটের গরু এই মাহমুদ্যা বদমাশ

জাফর ইমামের উচিৎ আদালতের সাহায্য চাওয়া এবং আমার দেশের বিরুদ্ধে মামলা করে জরিমানা এবং সচিত্র সংশোধনী দাবী করা। আমার দেশের শিক্ষা হওয়া উচিত। রাজনৈতিক ইস্যু নিয়ে মিথ্যাচার করে ভাল কথা, এখন দেখি মানুষের পরিচয় নিয়েও মিথ্যাচার শুরু করেছে। এধরনের খামখেয়ালী এবং মিথ্যাচারী পত্রিকার শিক্ষা হওয়া উচিৎ।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন