• ইউরোপে জাতীয়তাবাদের পুনরুত্থানঃ ইউরোসঙ্ঘ ত্যাগ করতে চায় নেদারল্যাণ্ড্‌সের ফ্রীডম পার্টি
    netherlands_geert_wilders.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৪, বৃহস্পতিবারঃ  ইউরোপীয় ইউনিয়ন-বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে ঐক্যবদ্ধ করছেন নেদারল্যাণ্ড্‌সের কড়া ডানপন্থী রাজনীতিক যীর্ত উইল্ডার্স। তিনি মনে করেন, আঞ্চলিক এ-সঙ্ঘ ও অভিন্ন ইউরো মুদ্রা পরিত্যাগ করে নিজস্ব জাতীয় অর্থনৈতিক ব্যবস্থা গড়ে তুললে লেদারল্যাণ্ড্‌সের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ঘটবে।

    উইল্ডার্সের পার্টি ফর ফ্রীডম এ-মুহূর্তে ওলন্দাজ সংসদে তৃতীয় বৃহত্তম দল। সাম্প্রতিক জনমত জরীপে দেখা গিয়েছে, আসছে মে মাসে অনুষ্ঠিতব্য ইউরোপীয় নির্বাচনে দলটি সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে। আজ হেইজে উইল্ডার বলেন,"আমাদেরকে অবশ্যই আবারও আমাদের নিজেদের অর্থ-বাজেট-সীমান্ত ও ভবিষ্যতের নিয়ন্ত্রক হতে হবে।" তাঁর দলের পৃষ্ঠপোষকতায় পরিচালিত একটি সমীক্ষায় ব্রিটিশ ক্যাপিট্যাল ইকোনমিক্স বলেছে, ইউরোসঙ্ঘ ও মুদ্রা ত্যাগ করলে ওলন্দাজ অর্থনীতির বছরে ১০% প্রবৃদ্ধি ঘটবে।

    একদিকে মহা-রাষ্ট্র বা মেগাস্টেইট ইউরোসঙ্ঘকে বর্তমান অর্থনৈতিক দুরবস্থার জন্য পরোক্ষভাবে দায়ী করে মহাদেশের বিভিন্ন দেশে বিশেষতঃ উত্তর ইউরোপে ক্রমাগতভাবে বাড়ছে ইউরো-বিরোধী রাজনৈতিক ভাষ্য ও কর্মসূচি। কারণ, অনেকে মনে করেন দক্ষিণ ইউরোপের ঋণ-জর্জরিত দেশগুলোকে বেইল-আউট বা উদ্ধার-ঋণ দিতে গিয়ে উত্তর ইউরোপকে তার ঘানি টানতে হচ্ছে। অন্যদিকে বহু-জনজাতিক রাষ্ট্রগুলোর অভ্যন্তরে প্রবলতর হচ্ছে সংখ্যালঘু কোনো-কোনো জাতিগোষ্ঠীর স্বাধীকারের দাবি।

    যদিও ব্রিটেইন ইউরো মুদ্রা ব্যবহার করে না তবুও অনেকে মনে করছেন এ-সঙ্ঘ থেকে বেরিয়ে আসা উচিত। এই একটি দাবিকে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে মূল বিষয় হিসেবে হাজির করে ইণ্ডিপেণ্ডেণ্ট পার্টি (ইউকেআইপি) জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এ-দলটির সাথে ক্ষমতাসীন জোটের অংশীদার কনসার্ভেটিভ পার্টির রাজনৈতিক নীতি ও কর্মসূচিতে মৌলিক বিশেষ পার্থক্য নেই, উপরন্তু রয়েছে ইউরো-বিরোধী কর্মসূচি। তাই মনে করা হচ্ছে, অনেক কনসার্ভেটিভ সমর্থক এখন ইউকেআইপি'র প্রতি ঝুঁকছেন।

    ব্রিটেইনে ইউরো-বিরোধী মনোভাব যেমন বাড়ছে, তেমনি যুক্তরাজ্যীয় জোট থেকে বেরিয়ে গিয়ে আলাদা স্কটল্যাণ্ড রাষ্ট্র গঠনের আন্দোলন সাম্প্রতিক সময়ে লক্ষ্যনীয়ভাবে জোরদার হয়েছে। স্কটিশ জাতীয়তাবাদীরা জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন এ-বছরের সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য স্বাধীনতার গণভৌটে বিজয়ী হতে। একইভাবে স্পেইনের সম্পদশালী কাতালোনিয়া প্রদেশেও চলছে আলাদা স্বাধীন রাষ্ট্র গঠনের আন্দোলন।

    ভয়াবহ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ইউরোপের জাতীয়তাবাদের প্রত্যক্ষিত প্রবল প্রভাবকে মাথায় রেখে এ-মহাদেশের মূলধারার রাজনীতিতে জাতীয়তাবাদী চিন্তা-ভাবনা অনেকটা কমে এসেছিলো। তবে অর্থমন্দায় পতিত ইউরোপের রাজনীতিতে দৃশ্যতঃ প্রত্যাবর্তন ঘটছে জাতীয়তাবাদের প্রতি আগ্রহের।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন