• কনসার্ভেটিভ-লিবডেম জোটঃ টিকে থাকবে বলে আস্থা আছে খুব অল্প ভৌটারদেরই
    David-Cameron-and-Nick-Clegg.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১৩ অগাস্ট ২০১২, সোমবারঃ  ব্রিটেইনে ক্ষমতাসীন কনসার্ভেটিভ ও লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির জোটের মধ্যে বর্তমানে হাউস অফ লর্ডস ও হাউস অফ কমন্সের সংস্কার নিয়ে পারস্পরিক দোষারোপ ও সঙ্কট চলছে, তার নিরিখে গতকাল দৈনিক গার্ডিয়ানে প্রকাশিত এক জরীপে দেখানো হয়েছে যে, তিন বছর পর অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচন পর্যন্ত জোটের টিকে থাকার ব্যাপারে আশাবাদী মাত্র ১৬% ভৌটার, আর দু’বছরের মধ্যেই জোট ভেঙ্গে যাবে বলে মনে করেন ৪৩%। জরিপের এ-ফল গত বছরের চেয়ে অনেক নৈরাশ্যকর।

    ইন্টারনেটের মাধ্যমে পরিচালিত দৈনিক গার্ডিয়ানের জরিপ উল্লেখ করে পত্রিকাটি জানায় যে, মাত্র ১৫দিন আগে যেখানে ভৌটারদের ৩৩% ভাগ আশাবাদ প্রকাশ করেছিলো কনসার্ভেটিব-লিবডেমের জোট সরকারের শেষ অবধি টিকে থাকার বিষয়ে, সদ্য সমাপ্ত জরির অর্ধেকেরও বেশি হ্রাস পেয়ে ১৬% ভাগে দাঁড়িয়েছে। বিপরীত দিকে, পূর্ববর্তী জরিপে যেখানে জোট ভেঙ্গে পড়বে বলে আশঙ্কা প্রকাশ-করা ভৌটারদের হার যেখানে ছিলো ২৩%, সর্বশেষ জরিপে তা দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৪৩%।

    অবশ্য, গার্ডিয়ান জানিয়েছে, তাদের তূল্য জরিপ দুটোর মধ্যে মেথডোলজিক্যাল বা পদ্ধতিক পার্থক্য রয়েছে। যেখানে জুলাই মাসের জরিপটি ছিলো টেলিফৌন-মাধ্যমে, অগাস্টের জরিপটি সেখানে করা হয়েছে ইন্টারনেট-মাধ্যমে। পদ্ধতিক পার্থক্যের কারণে ফলফলে সিগনিফিক্যান্ট বা তাৎপর্য্যপূর্ণ পার্থক্য সৃষ্টি করতে পারে।

    গার্ডিয়ানের জরিপে কনসার্ভেটিভ-লিবডেম জোট বিষয়ে ভৌটারদের নেতিভাব বৃদ্ধি ও ইতিভাব হ্রাসের কারণ হিসেবে জোটের মধ্যে সাম্প্রতিক মতপার্থক্যকে কারণ হিসেবে নির্দেশ করা হয়েছে।

    উল্লেখ্য, টরি-লিবেডেম এর মধ্যে যে বিষয়গুলোতে পারস্পরিক সমর্থনের যে বুঝাপড়া হয়েছিলো, তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে হাউস অফ লর্ডসের সদস্যত্ব বংশানুক্রমিক না হয়ে নির্বাচনের মাধ্যমে নির্ধারিত হবে এবং হাউস অফ কমন্সের বর্তমান যে কনস্টিটুয়েন্সি আছে, সেগুলোর মধ্যে ভৌটার সংখ্যার সাম্য আনার জন্য এর বাউণ্ডারি বা পরিধি পুনঃনির্ধারিত করে সদস্য-সংখ্যা কমিয়ে আনা হবে।

    কিন্তু কনসার্ভেটিভ পার্টির এমপিদের অধিকাংশ হাউস অফ লর্ডসের সংস্কার সমর্থন করবেন বিধায় জোট সরকারের পক্ষ থেকে লর্ডস সংস্কারের প্রস্তাব বাতিল করা হয়েছে। কনসার্ভেটি এমদের বিষয়টি লিবডেমকে হতাশ করেছে।

    লিবডেম নেতা নিক ক্লেগ তাঁর লর্ডস সংস্কার প্রস্তাবের ব্যর্থতা মেনে নিয়েছেন কিন্তু বলেছে যে, এটি জোটের বুঝাপড়ায় নেতিবাচক অভিঘাত তৈরী করবে। তিনি সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করেছেন, হাউস অফ কমন্সের বাউণ্ডারি সংস্কারের যে কনসার্ভেটিভ দলীয় প্রস্তাব আসতে যাচ্ছে, তার প্রতি তাঁর দলের এমপিদের তিনি সমর্থন না-দিতে বলবেন। ফলে, বাউণ্ডারি পুনঃনির্ধারণের মাধ্যমে আগামী নির্বাচনে কনসার্ভেটিভ পার্টির যে-সুবিধা প্রাপ্তি আশা করা যাচ্ছিলো, সে গুড়ে বালি ঢালবেন তিনি।

    এদিকে, গত শুক্রবার রাতে কনসার্ভেটিভ প্রধানমন্ত্রী ডেইভিডে ক্যামেরোন তাঁর ফ্ল্যাটে এক ডিনারে নিমন্ত্রণ করেছিলেন লিবডেম উপ-প্রধানমন্ত্রী নিক ক্লেগকে। এতে আরও ছিলেন কনসার্ভেটিভ দলীয় চ্যান্সেলার অফ এক্সচেকার জর্জ বৌর্ন এবং লিবডেম দলীয় চীফ ট্র্যাজারি সেক্রেট্যারী ড্যানী আলেক্স্যাণ্ডার।

    কনসার্ভেটিভ-লিবডেমের মধ্যে মতপার্থক্য রয়েছে স্বীকার করে প্রধানমন্ত্রী ক্যামেরোন বলেন, তিনি মতপার্থক্যের বিষয়গুলো পেছনে ফেলে সামনের দিকে দৃষ্টি নিক্ষেপ করে দেশের সু-সরকার ও সু-অর্থনীতি নিশ্চিত করতে চান।
    তবে তিনি বলেন, হাউস অফ কমন্সের বাউণ্ডারি সংস্কারের বিষয়টি হাউস কমন্সের সদস্যত্ব বিষয়ক সংস্কারের সাথে কোনো সম্পর্ক নেই এবং লিবডেমের সাথে এই দুটোকে পারস্পরিক সম্পর্কিত করে কোনো দরদস্তুর হয়নি।

    প্রধানমন্ত্রী বলেন, লিবডেমের সাথে তাঁর কনসার্ভেটিভ দলের যে দরদস্তুর হয়েছিলো, তা ছিলো লিবডেম-প্রস্তাবিত নির্বাচন পদ্ধতি সংস্কার বিষয়ে গণভৌট অনুষ্ঠান এবং কনসর্ভেটিভ প্রস্তাবিত নির্বাচনী এলাকার সীমানা বা বাউণ্ডারির পুনঃনির্ধারণ। ক্যামেরোন বলেন, ‘স্পষ্টতঃ তিনি ভুল (নিক ক্লেগ) এবং আমি ঠিক’।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন