• কর্বিনের 'ডিজিট্যাল ডেমৌক্রেসী' ইস্তেহারঃ সবার জন্য উচ্চগতির ইণ্টারনেটের গ্যারাণ্টী
    corbyn_digital_manifesto_launch.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - লণ্ডন, ৩০ অগাষ্ট ২০১৬, মঙ্গলবারঃ লেইবার পার্টির বর্তমান নেতা জেরেমি কর্বিন আজ তাঁর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক সাতদফা নীতি 'ডিজিট্যাল ডেমৌক্রেসী মেনিফেষ্টো' প্রকাশ করেছেন। এ-নীতিমালার আওতায় ইণ্টারনেট ও মোবাইল পরিষেবাকে সর্বজনীন করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

    আট দফার এই ইস্তেহারে ইণ্টারনেটকে স্বল্প খরচে সকলের কাছে পৌঁছে দেওয়া ছাড়াও রয়েছে রাষ্ট্রীয় শিক্ষার উপকরণ 'ডিজিট্যাল' পদ্ধতিতে প্রাপ্তি, সকলের জন্য বিনামূল্যের উন্মুক্ত লাইব্রেরী, রাষ্ট্রীয় কার্যক্রমে জনগণের গণতান্ত্রিক অংশগ্রহণের জন্য সম্মিলিত আলোচনা ব্যবস্থা, নাগরিকদের উপর যত্রতত্র সরকারী নজরদারী বন্ধ করা, রাষ্ট্রীয় পরিষেবা প্রাপ্তি সহজ করতে 'ডিজিট্যাল পাসপৌর্ট', সকলের জন্য কম্পিউটার প্রৌগ্রামিং প্রশিক্ষণ ইত্যাদি।

    কর্বিনের প্রস্তাবিত বিষয়গুলোর মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ব্রিটেইনের নির্বাচনসমূহ ইণ্টারনেটের মাধ্যমে সম্পাদন করার ব্যাপারে তিনি জনগণের সাথে পরামর্শ শুরু করবেন। ইণ্টারনেটের মাধ্যমে যদি ভৌট দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়, আশা করা হচ্ছে তাহলে আরও অনেক বেশি ভৌটার নির্বাচনী প্রক্রিয়ার সাথে যুক্ত হবেন।

    প্রস্তাবিত উদ্দেশ্যগুলো অর্জনে বর্তমান ইণ্টারনেট অবকাঠামোতে ব্যাপক উন্নয়ন সাধন করতে হবে যার জন্য প্রয়োজন বিপুল বিনিয়োগ। কর্বিন জানান এর সম্ভাব্য পরিমান প্রায় ২৫ বিলিয়ন পাউণ্ড। এ-বিনিয়োগ আসবে তাঁরই প্রস্তাবিত ৫০০ বিলিয়ন পাউণ্ডের জাতীয় বিনিয়োগ ব্যাঙ্ক থেকে।

    বর্তমানে প্রচলিত ইণ্টারনেট সেবার মানে গ্রাম ও শহরের মধ্যে ফারাকের সমালোচনা করে কর্বিন বলেন, ব্রিটিশ টেলিকম ও অন্যান্য ফাইবার অপ্‌টিক্‌স সেবাদানকারী কোম্পানীকে বর্তমান আইনের কাঠামোতেই সর্বজনীন ইণ্টারনেট সেবা প্রদানে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হতে হবে, নয়তো এ-অবকাঠামোকে রাষ্ট্রীকরণ করার ব্যাপারে তাঁর মন উন্মুক্ত রয়েছে।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন