• ক্রাইমিয়ার স্বাধীনতাকে স্বীকৃতি পুতিনেরঃ রাশিয়া ও ক্রাইমিয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ'র
    crimea_declares_independence_01.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১৭ মার্চ ২০১৪, সোমবারঃ গতকাল ক্রাইমিয়ার নাগরিকেরা বিপুল পরিমান ভৌটের মাধ্যমে ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন ইচ্ছা ব্যক্ত করার পর আজ সেখানকার পার্লামেণ্ট স্বাধীনতা ঘোষণা করেছে। একই সাথে নতুন এ-দেশটি পৃথিবীর সকল জাতি ও জাতিসঙ্ঘকে আহবান করেছে তাদের স্বাধীনতার স্বীকৃতি দিতে।

    জাতিগতভাবে রুশ সংখ্যাগরিষ্ঠ ও ঐতিহাসিকভাবে ১৯৫৪ সাল পর্যন্ত রাশিয়ার অংশ হিসেবে বিরাজিত দেশটি আজ আনুষ্ঠানিকভাবে রাশিয়ার সাথে পুনরার একত্রিত হওয়ার আবেদনও করেছে। রাশিয়া আজ ক্রাইমিয়াকে একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে।

    ক্রাইমিয়ার গণভৌট, স্বাধীনতা ঘোষণা ও তাতে রশিয়ার স্বীকৃতি - প্রতিটি ঘটনারই বিরোধিতা করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন। গণভৌটের আগেই পশ্চিমা এ-মিত্ররা হুমকি দিয়েছিলো, ক্রাইমিয়া ইউক্রেন থেকে আলাদা হয়ে গেলে রাশিয়ার উপর বিভিন্ন প্রকার ও মাত্রার নিষেধাজ্ঞা কিংবা অবরোধ আরোপ করা হবে।

    আজ সে-হুমকির বাস্তবায়ন ঘটিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ উভয় রাষ্ট্র ও রাষ্ট্র-সঙ্ঘই নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে রাশিয়া ও ক্রাইমিয়ার মোট ৩২ জন রাজনীতিক ও সরকারী গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির উপরে। নিষেধাজ্ঞার ধরণ হিসেবে প্রাথমিকভাবে ভ্রমণ অবরোধ ও বিদেশি রক্ষিত এ-সকল ব্যক্তির সম্পদ হিমায়িত করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। নিষেধাজ্ঞার আওতায় রয়েছেন ইউক্রেনের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেণ্ট ভিক্টর ইয়ানুকোভিচ, রাশিয়ার একজন উপ-প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি রোগোজিন ও ক্রাইমিয়ার নেতা সার্গেই আক্সিয়োনভ।

    রাশিয়া এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে কোন প্রতিক্রিয়া জানায়নি। তবে প্রতিরক্ষা বিষয়ক উপ-প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি রোগোজিন এক ট্যুইটার বার্তায় মার্কিন প্রেসিডেণ্ট বারাক ওবামাকে প্রশ্ন করেছেন, "বিদেশ যাদের এ্যাকাউণ্ট বা সম্পদ নেই তাদের ব্যাপারে কী করবেন, কমরেড ওবামা? না-কি সে-ব্যাপারটি ভাবেননি আপনি?"

    রয়টার্স জানিয়েছে, শুরুতে ইইউ ১২০-১৩০ জনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে চাইলেও আজ সে-তালিকা কাট-ছাট করে ২১ জনে নামিয়ে আনে।

     

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন