• চীনে পাঁচজাতির সম্মিলিত সমর-ক্রীড়াঃ অংশ নিচ্ছে অত্যাধুনিক সমরাস্ত্রে সজ্জিত ৭,০০০ সৈন্য
    china_sco_military_exercise_2014.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ২৪ অগাস্ট ২০১৪, রোববারঃ আজ থেকে চীনে শুরু হয়েছে ৬ দিনের একটি বৃহৎ সামরিক অনুশীলন যাতে অংশ নিচ্ছে রাশিয়া-সহ সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজ়েশনের স্থায়ী পাঁচ সদস্য-রাষ্ট্র। রুশ সংবাদ মাধ্যমগুলো একে চীন-রাশিয়ার অংশগ্রহণে সর্ববৃহৎ সামরিক অনুশীলন বলে মন্তব্য করেছে। খবর জানিয়েছে জিনহুয়া, পিপল্‌স ডেইলি, রিয়া নভোস্তি, ইথার তাশ ও রাশিয়া টুডে।

    'পীস মিশন ২০১৪' নামের এ-অনুশীলনকে আনুষ্ঠানিক বিবরণে 'সন্ত্রাস-বিরোধী সামরিক ক্রীড়া' বলে অবিহিত করা হয়েছে। উদ্দেশ্য হিসেবে বলা হয়েছে, তিন 'অপশক্তি' - সন্ত্রাস, বিচ্ছিন্নতাবাদ ও চরমপন্থা - মোকাবেলায় সংস্থার সদস্য-রাষ্ট্রগুলোর প্রস্তুতি যাচাই ও সক্ষমতা বৃদ্ধি করা। ইনার মঙ্গোলিয়া প্রদেশের ঝুরিহে সামরিক ঘাঁটিতে অনুষ্ঠিত এ-অনুশীলনে অংশ নিচ্ছে স্বাগতিক চীন, রাশিয়া, কাজাখ্‌স্তান, কিরঘিজ্‌স্থান ও তাজিকিস্তান।

    রাশিয়া থেকে অন্ততঃ ১,০০০ সৈন্য যোগ দিয়েছে এ-সমর-ক্রীড়ায়।  ইথার তাশ জানিয়েছে, রুশ মোটর রাইফেল ব্রিগেইড ও বিমান বাহিনীর একটি করে দল থাকছে এতে, যারা বিভিন্ন ধরণের স্থল ও বায়ুতে ব্যবহার যোগ্য অস্ত্র এবং ইলেকট্রনিক যুদ্ধাস্ত্রের অনুশীলন করবে। এছাড়াও, ৬০টি সাজোঁয়া যান, ১৩টি ট্যাঙ্ক, মাল্টিপল রকেট লঞ্চার, হেলিকপ্টার, জঙ্গী বিমান ইত্যাদিও অংশ নিবে এতে।

    ১৯৯৬ সালে চীনে এক সম্মেলনের মাধ্যমে সাংহাই ফাইভ নামের একটি সংস্থা প্রতিষ্ঠিত হয় - যার অন্তর্ভূক্ত ছিলো চীন, রাশিয়া, কাজাখ্‌স্তান, কিরঘিজ্‌স্তান ও তাজিকিস্তান। ২০০১ সালে উজবেকিস্তান যুক্ত হলে সংস্থাটির নাম বদলে সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজ়েশন (এসসিও) রাখা হয়। ২০০৩ সাল থেকে সংস্থাটির সদস্য-রাষ্ট্রগুলো দুয়েক বছরের বিরতি দিয়ে দিয়ে সম্মিলিত সামরিক অনুশীলন আয়োজন করে আসছে। উল্লেখ্য, প্রাক্তন ছয় সোভিয়েত রাষ্ট্র নিয়ে গঠিত সামরিক সহযোগিতা সংস্থা কালেক্টিভ সিকিউরিটি ট্রীটি অর্গানাইজ়েশন বা সিএসটিও'র সাথে এসসিওকে একীভূত করার প্রস্তাব উঠেছে সম্প্রতি।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন