• জনতার রোষে কায়রোর ইসরায়েলী দূতাবাস ভাঙ্গনঃ কূটনীতিকদের আকাশপথে উদ্ধার
    Israeli-Embassy-attacked.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১০ সেপ্টেম্বর ২০১১, শনিবারঃ  ইসরায়েলের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ মিশরীয় জনতা আজ শনিবার রাজধানী কায়রোর ইসরায়েলী দূতাবাসের নিরাপত্তা বেষ্টনী চূর্ণ করে ফেলায়, অরক্ষিত কূটনীতিকদের মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও ইসরায়েলী প্রধানমন্ত্রী মধ্যে টেলিফৌন-আলোচনার ভিত্তিতে আকাশ-পথে উদ্ধার করে স্বদেশে নিয়ে যাওয়া হয়।

    গতমাসে মিশর-ইসরায়েল সীমান্তে অজ্ঞাত জঙ্গবাদী হামলায় ৯ ইসরায়েলীর প্রাণহানির পাল্টা হিসেবে মিশরের সীমান্তবাহিনীর ৬ সদস্যকে হত্যা করার ঘটনায় ইসরায়লের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ মিশরীয়রা গত কয়েক দিন যাবৎ বিক্ষোভ প্রদর্শন করছিলো। এর মধ্যে বিক্ষুব্ধ জনতার উপর পুলিস লাঠি-পেটা ও কাঁদুনে গ্যাস ব্যবহার করেও হটাতে পারেনি।

    গতকাল শুক্রবার বিকেল থেকে বিক্ষোভকারীদের শক্তি বৃদ্ধি পায় এবং সারারাত ধরে তাদের তৎপরতা চলে। তাঁরা রাস্তার বৈদ্যুতিক বাতির ভারী খুঁটি তুলে নিয়ে তা দিয়ে ২১-তলা দূতাবাসের সম্মুখের দেয়াল ভেঙ্গে ফেলে।

    কায়রোতে যখন এ-তাণ্ডব চলছিলো, তেল-আবিবে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু পরম উদ্বেগের সাথে পরিস্থিতি লক্ষ্য করেন এবং করণীয় সম্পর্কে পরামর্শের জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সাথে টেলিফৌনে কথা বলেন।

    রাত-ভোরে স্থানীয় সময় ৪টা ৪০মিনিটে ইসরায়েলী সামরিক বিমান এসে সপরিবারে ইসরায়েলের রাষ্টদূত-সহ ৮৬ জনকে উদ্ধার করে কিন্তু ৬ জন ভিতরে আটকা পড়ে থাকে। পরবর্তীতে মিশরীয় কমান্ডো বাহিনী এসে তাঁদের উদ্ধার করে।

    শুক্রবার রাত-ভর বিক্ষোভ ও ইসরায়েলী দূতাবাস আক্রমণের ঘটনায় পুলিসের হস্তক্ষেপে চেষ্টায় অন্ততঃ তিনজন নিহত এবং ১,০৯৩ ব্যক্তি আহত হয়েছেন বলে মিশররের উপ-স্বাস্থ্যমন্ত্রী সংবাদ-মাধ্যমগুলোকে জানিয়েছেন।

     

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন