• জরিপ প্রতিবেদনঃ যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি ৫ জনে ৪ জন অর্থনৈতিক নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে
    usa_poverty.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ২৮ জুলাই ২০১৩, রোববারঃ  যুক্তরাষ্ট্রের শতকরা প্রায় ৮০ ভাগ পূর্ণবয়স্ক নাগরিক কর্মহীনতা, সরকারী সাহায্যের উপর নির্ভরশীলতা অথবা প্রায়-দারিদ্রের মুখোমুখি এসে দাঁড়িয়েছে - এমন তথ্য উঠে এসেছে এসৌসিয়েটেড প্রেস (এপি)'র একটি একান্ত জরিপ-প্রতিবেদনে। পুঁজিবাদী দেশগুলোতে চলমান অর্থনৈতিক দূরবস্থার মাত্রা অনুধাবন করতে এপি'র এ-প্রতিবেদনটি সাহায্য করবে বলে মনে করা হচ্ছে।

    যুক্তরাষ্ট্রে এ-ভয়াবহ অবস্থার জন্য প্রধানতঃ তিনটি কারণ চিহ্নিত করেছে এপি ও জিএফকে পরিচালিত যৌথ এ-জরিপে। এগুলো হচ্ছে, (১) মার্কিন অর্থনীতি ক্রমাগত বিশ্বায়িত হওয়া, (২) বেড়ে চলা ধনী-দরিদ্রের ব্যবধান ও (৩) শিল্প-পণ্য খাতে ভালো মাইনের চাকুরি কমে যাওয়া।

    অর্থনৈতিক অনিরাপত্তার সংজ্ঞা হিসেবে নির্ধারণ করা হয়েছে, অন্ততঃ এক বছর ধরে বেকার থাকা, ফূড স্ট্যাম্প বা এ-ধরণের অন্য কোনও সরকারী সাহায্য নিতে বাধ্য হওয়া অথবা উপার্জন দারিদ্যসীমার ১৫০% উপরে না থাকা। আমেরিকার সকল জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে পরিচালিত এ-জরিপে দেখা যাচ্ছে অর্থনৈতিক নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে ৭৯% নাগরিক।

    শেতাঙ্গ জনগোষ্টীর মধে কষ্টে থাকার মাত্রা ১৯৮৭ সালের পর থেকে এখনই সবচেয়ে বেশি। তবে মোটের বিচারে অশেতাঙ্গ জনগোষ্টীই এখনও পর্যন্ত বেশি অর্থনৈতিক অনিরাপত্তায় ভুগছে, এককভাবে যার হার ৯০%। 

    জনগোষ্টী ও দারিদ্র্য বিষয়ের বিশেষজ্ঞ, হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক উইলিয়াম জুলিয়াস ওয়িলসন এ-জরিপ সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন, "এখন আমেরিকার বুঝার সময় হয়েছে যে, অনেক বৈষম্যের - শিক্ষা ও গড় আয়ু থেকে দারিদ্য - ক্রমবর্ধমান কারণ হচ্ছে অর্থনৈতিক শ্রেণী অবস্থান"।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন