• জরীপে প্রকাশঃ প্রায় ৭০% হাসপাতাল ডাক্তার এনএইচএস রিফর্ম বিলের বিরুদ্ধে
    NHS-board.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১৭ মার্চ ২০১২, শনিবারঃ  ব্রিটেইনের হাসপাতাল-ডাক্তারদের প্রতিনিধিত্বকারী সংস্থা আরসিপি বা রয়্যাল কলেইজ অফ ফিজিশিয়ানের ফেলৌ ও সদস্যদের মধ্যে পরিচালিত এক জরীপের আজ প্রকাশিত ফলাফলে দেখা যায়, ১০ জনের মধ্যে প্রায় ৭ জন ডাক্তার এনএইচএস তথা জাতীয় স্বাস্থ্য পরিষেবা সংস্কারের জন্য সরকারের আনীত প্রস্তাব প্রত্যাখান করছেন।

    বিতর্কিত এনএইচএস রিফর্ম বিলের ব্যাপারে আরসিপি তার ২৫,৪১৭ জন ফেলৌ ও সদস্যকে তাঁদের মতামত জানিয়ে জরীপে অংশগ্রহণের অনুরোধ জানালে ৮,৮৭৮ জন ডাক্তার সাড়া দিয়েছেন, যা গবেষণার জগতে উচ্চ-হারের সাড়া বলে বিবেচিত। 

    অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ৬৯%  (৬,০৯২) ডাক্তারদের জানান, বর্তমানে বিলটি যেভাবে আছে, তাঁরা তা প্রত্যাখান করেন। বিপরীতে মাত্র ৬% (৫২৫) ডাক্তার বিলের পক্ষে সায় দিয়েছেন। আর, ২২% (১,৯৭১) জানিয়েছেন যে, তাঁরা পরিপূর্ণভাবে সমর্থনও করেন না এবং বিরোধিতাও করেন না। ৩% (২৯০) ডাক্তার কোনো মতামত দেননি।

    আরসিপির কী করা উচিত? এ-প্রশ্নের উত্তরে ৪৫% (৪,৩৯৬) ডাক্তার জানিয়েছেন, বিল প্রত্যাহারের জন্য আরসিপিকে দাবী করতে হবে। অংশগ্রহণকারীদের ৪৬% (৪,০৯৯) বলেন, বিলটিতে ইতিবাচক পরিবর্তন আনার জন্য আরসিপির সসমালোচনামূলক সম্পৃক্ত অব্যাহত রাখতে হবে। অবশিষ্ট ৪% (৩৯৩) ডাক্তার আরসিপির করণীয় বিষয়ে কোনো মতামত দেননি।

    জরীপটির তৃতীয় প্রশ্ন ছিলো সরকারের রিফর্ম বিলের কোন্‌-কোন্‌ বিষয় নিয়ে তাঁরা উদ্বিগ্ন। উত্তরে ডাক্তারগণ প্রশিক্ষণ, শিক্ষা ও গবেষণা (৫,৫৫০), ব্যক্তি মালিকাধীন খাতের ব্যবহার (৫,৪১৪), ক্লিনিক্যাল কমিশনিং গ্রুপের কমিশনিং (৪,৯০৫), পছন্দ ও প্রতিযোগিতা (৪,৮৬৬), ন্যাশনাল কমিশনিং বৌর্ডের প্রবর্তন সহ প্রস্তাবিত কাঠামো পরিবর্তন (৪,৬৮৭) এবং সেক্রেট্যারী অফ হেলথের ভূমিকা বিষয়ে (৩,২১৬) তাঁদের উদ্বেগের কথা জানান।

    জরীপের ফলাফল বিষয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে রয়্যাল কলেইজ অফ ফিজিশিয়ানের প্রেসিডেন্ট স্যার রিচার্ড থম্পসন বলেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি, মেডিক্যাল রয়্যাল কলেইজগুলোর মধ্যে এটি হচ্ছে একক বৃহত্তম জরীপ, যেখানে সর্বোচ্চ হারে সাড়া পাওয়া গিয়েছে এবং এটি স্পষ্টভাবে দেখাচ্ছে যে আরসিপির ফেলো ও সদস্যদের  সংখ্যাগরিষ্ঠ ডাক্তার ব্যক্তিগতভাবে বিলটি প্রত্যাখ্যা করছেন, কিন্তু বিলটি প্রত্যাহারের বিষয়ে আরসিপির দাবী তোলা উচিত নাকি বিলটির সাথে সমালোচনামূলক সম্পৃক্তি অব্যাহত রাখা উচিত, সে বিষয়ে তাঁরা প্রায় সমান হারে বিভক্ত।’

    সম্প্রতি অনুষ্ঠিত আরসিপি’র এক অনন্য সাধারণ সভাতে সরকারের এনএইচএস সংস্কার বিলের বিরুদ্ধে শক্তিশালী অবস্থান গৃহীত হবার পর আজকের প্রকাশিত জরীপের ফল সরাকারে স্বাস্থ্যনীতির উপর আরেকটি আঘাত বলে মনে করা হচ্ছে।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন