• তিউনিসিয়ার উৎখাতিত প্রেসিডেন্ট বিন আলিকে সস্ত্রীক ৩৫ বছরের কারদণ্ড
    Former-Tunisian-President-008.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি, ২০ জুন ২০১১, সোমবারঃ  রাষ্ট্র-ক্ষমতা ব্যবহার করে চুরি এবং বেআইনী-ভাবে প্রভূত বিদেশী মুদ্রা, মনিমানিক্য, প্রত্নতাত্ত্বিক শিল্পকর্ম, মাদকদ্রব্য ও আগ্নেয়াস্ত্র অধিকারে রাখার অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করে সোমবার তিউনিসিয়ার আদালত দেশটির ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট জেইন এল-আবেদিন বিন আলি ও তার স্ত্রী লেইলা ত্রাবেলসিকে ৩৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে।

    ২৩ বছরের ক্ষমতায় থাকা তিউনিসিয়ার প্রেসিডেন্ট বিন আলি গত ১৪ জানুয়ারী গণ-অভ্যূত্থানে উৎখাতিত হয়ে তার পরিবার সহ সৌদি আরবে আশ্রয় গ্রহণ করার কারণে তাদের অনুপস্থিতিতেই এ-রায় ঘোষণা করা হয়।

    বিচারের শুনানি শুরু হবার আগে বিচারক তৌহামি হাফিয়ান একে ‘একটি স্বাভাবিক বিচার’ বলে বর্ণনা করেন। রায়ে কারাদণ্ডের পাশাপাশি হতভাগ্য প্রেসিডেন্ট ও তার স্ত্রীকে অর্থদণ্ডও দেয়া হয়, যার পরিমাণ ৯১ মিলিয়ন দিনার (৪১ মিলিয়ন পাউন্ড)। এ-ছাড়াও বিচারক বলেন, প্রদত্ত দণ্ড তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের মাত্র অংশ বিশেষের উপর ভিত্তি করে করা হয়েছে। বাকী অভিযোগের উপর রায় পরবর্তীতে শোনানো হবে বলে তিনি জানান।

    বিচারক আরও জানান, বেন আলির ফেলে যাওয়া সম্পদের মধ্যে তার বিলাসবহুল ভিলা-সমূহ এবং বিভিন্ন হৌটেল, ব্যাঙ্ক ও ফার্মাসিউটিক্যালে তাদের সংরক্ষিত স্বার্থ চিহ্নিত ও উদ্ধার করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

    উল্লেখ্য, উৎখাতিত হয়ে বেন আলির দেশ-ত্যাগের পর ‘পরিবার’ নামে পরিচিত তার নিকটাত্মীয়দের মধ্য থেকে ৩০-এর বেশি সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন