• তুরষ্কে 'ক্যু' ব্যর্থঃ এর্দোয়ানের শুদ্ধি অভিযানে এ-পর্যন্ত ৬,০০০ গ্রেফতারিত
    turkey_coup_tank_and_erdogan_supporters.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১৭ জুলাই ২০১৬, রোববারঃ তুরষ্কে শুক্রবার রাতে শুরু হওয়া 'ক্যু-প্রচেষ্টা' শনিবারের মধ্যেই দমন করা হয়েছে বলে দাবী করেছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। এখন চলছে ব্যাপক মাত্রার 'বিশোধন' অভিযান, যাতে এ-পর্যন্ত ছয় হাজারেরও বেশি  লোককে আটক করা হয়েছে ক্যু'র সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে। ব্যর্থ বলে গন্য এ-সেনা-অভ্যূত্থানে অন্ততঃ ২৬৫ জন নিহত ও ১৪০০ জনেরও বেশি সামরিক ও বেসামরিক লোক আহত হয়েছে।

    শুক্রবার রাতে তুরষ্কের সেনাবাহিনী সরকারী টিভি চ্যানেল দখল করে ক্যু'র ঘোষণা দেয়। প্রেসিডেণ্ট রেজেপ তায়েপ এর্দোয়ানের সরকার দাবী করেন, সেনাবাহিনীর একটি অংশ এতে জড়িত, সমগ্র বাহনী নয়। তবে এখনও পর্যন্ত নিশ্চিত করে জানা যায়নি ক্যু'র পেছনে ঠিক কোন্‌-কোন্‌ অফিসার ছিলেন।

    প্রেসিডেণ্ট এর্দোয়ান দাবী করেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রিত তুর্কী ধর্মীয় নেতা ফেদুল্লাহ্‌ গুলেনের সমর্থকরা ক্যু-প্রচেষ্টার জন্য দায়ী। অপর দিকে গুলেন বলছেন, তাঁর ধারণা এর্দোয়ান নিজেই ক্যু-নাটক সাজিয়েছেন, যেনো এটিকে ছুতো বানিয়ে বিরোধীদের আরও ব্যাপকমাত্রায় দমন করা যায়।

    রয়টার্স জানিয়েছে, ক্যু ব্যর্থ হওয়ার ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়ার আগেই প্রেসিডেণ্ট এর্দোয়ান ঘোষণা দিয়েছিলেন সেনাবাহিনীতে শুদ্ধি অভিযান চালানোর। তিনি বলেছিলেন, "এই অভ্যূত্থান হচ্ছে আমাদের কাছে পাঠানো আল্লাহ্‌র উপহার, কারণ এটি হবে আমাদের সেনাবাহিনীকে পরিষ্কার করার একটি সুযোগ"।

    আজ এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে তুরষ্কের আইনমন্ত্রী বেকির বোস্‌দাগ বলেছেন, "শুদ্ধি [অভিযান] চলছে। এ-পর্যন্ত প্রায় ৬,০০০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।"

    বার্তা সংস্থা এ্যাসৌসিয়েটেড প্রেস জানিয়েছে, ইতোমধ্যেই তিন জন জেনারেল ও অন্যান্য অফিসার-সহ অন্ততঃ ৩,০০০ সৈন্যকে আটক করা হয়েছে। সেনাবাহিনী ছাড়াও রাষ্ট্রীয় অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের, বিশেষ করে বিচারবিভাগের কয়েক হাজার বিচারক ও আইনবিদকে আটক করা হয়েছে।

    বিচারকদের আটকের কারণে আশঙ্কা করা হচ্ছে, ক্যুর সাথে জড়িত থাকা অভিযোগে যে বিচার হবে তা এক-পেশে হতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতারা এর্দোয়ানকে আহবান করেছেন আইনের শাসন বজায় রাখতে। ফরাসী বিদেশমন্ত্রী জ্যাঁ মার্ক এ্যারো বলেছেন, "আমরা চাই তুরষ্কে আইনের শাসন পূর্ণরূপে কাজ করুক"। "এই ক্যু এর্দোয়ানের জন্য ব্ল্যাঙ্ক চেক নয়।"

    গ্রীসে রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থী তুর্কী অফিসার

    ব্যর্থ সেনা অভ্যূত্থানের এক পর্যায়ে একটি ব্ল্যাকহক্‌ মিলিট্যারি হেলিকপ্টারে গ্রীসে উড়ে গিয়ে রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থনা করেছেন সাতজন অফিসার তুর্কী। তাদের সাথে একজন বেসামরিক ব্যক্তিও রয়েছেন। তুর্কী সরকার গ্রীসের কাছে দাবী করেছে 'পলাতকদের ফিরিয়ে দিতে'। গ্রীস কর্তৃপক্ষ বলেছে, হেলিকপ্টারটি যতো দ্রুত সম্ভব ফিরিয়ে দেওয়া হবে, তবে প্রাণ রক্ষার্থে আশ্রয় প্রার্থনাকারীদের আবেদনের ব্যাপারে এখনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন