• থাইল্যাণ্ডে সরকার-বিরোধী আন্দোলনঃ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জরুরী অবস্থা জারি
    thailand_delcares_emergency_amid_protests.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ২১ জানুয়ারি ২০১৪, মঙ্গলবারঃ থাইল্যাণ্ডে ফেউ থাই পার্টিকে ক্ষমতা থেকে অপসারনের লক্ষ্যে বিরোধী ডেমোক্র্যাট পার্টির অন্দোলনকে কেন্দ্র করে রাজধানী ব্যাঙ্ককে ক্রমেই সহিংসতা বাড়ছে। এ-অবস্থায় সরকার আজ ৬০ দিনের জন্য দেশটিতে জরুরী অবস্থা জারি করেছে। খবর জানিয়েছে এএফপি ও বিবিসি।

    ডেমোক্র্যাট পার্টির নেতৃত্বে আরও কয়েকটি দল ও সংঘ নিয়ে গঠিত পিপল'স ডেমোক্রেটিক রিফর্ম কমিটী গত বছরের অক্টোবর থেকে সরকার-বিরোধী আন্দোলন চালিয়ে আসছে। বিরোধী সাংসদ সুতিপ তাক্সুবান রয়েছেন আন্দোলনের নেতৃত্বে, যিনি বিগত অনির্বাচিত সরকারের ভাইস প্রেসিডেণ্ট ছিলেন।

    ২০১১ সালে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জিনলাক শিনাওয়াতের - যিনি প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী তাক্সিন শিনাওয়াতের বোন - থাই ফেউ পার্টি নির্বাচনে জয়লাভ করে। ২০০৪ সালে তাক্সিনকে এক সামরিক অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত করার পর একটি অনির্বাচিত সরকার ক্ষমতায় ছিলো, যাদের বিরুদ্ধে ফেউ থাই পার্টি আলোচিত রেড শার্ট আন্দোলন পরিচালনা করেছিলো। তৎকালীন সরকার রেড থাই আন্দোলনের শতাধিক কর্মীকে গুলি করে হত্যার মাধ্যমে সে-আন্দোলন দমন করেছিলো।

    ক্ষমতাসীন ফেউ থাই পার্টির সাংসদরা সম্প্রতি একটি বিল আনে যার আওতায় বিগত কয়েক বছরের রাজনৈতিক হানাহানির অবসান ঘটানোর উদ্দেশ্যে সাধারণ ক্ষমা ঘোষণার কথা ছিলো। তবে বিরোধীরা একে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে দেশে 'ফিরিয়ে আনার উদ্দেশ্যে প্রকৌশল' হিসেবে দেখতে শুরু করে। দৃশ্যতঃ সে-ঘটনাকে কেন্দ্র করেই সুতিপ রাজধানীতে লোক জড়ো করতে শুরু করেন। সারা দেশ থেকে বাসে করে প্রচুর লোক আনা হয় বিক্ষোভে যোগ দিতে।

    রাজনৈতিক অচলাবস্থায় গত ডিসেম্বরের ৯ তারিখে প্রধানমন্ত্রী সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে ফেব্রুয়ারির ২ তারিখে নতুন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে ঘোষণা দেন। বিরোধীরা নির্বাচনের ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করে অনির্বাচিত একটি সংস্কার কমিটী গঠনের দাবি জানায়। এ-মাসের ১৩ তারিখ থেকে তারা ব্যাঙ্ককে অনবরত অবস্থানের কর্মসূচি শুরু করলে পরিস্থিতি ক্রমাগত খারাপ হতে আরম্ভ করে।

    কয়েক দফায় কয়েকটি সরকারী ভবন ও পরিষেবা কেন্দ্র দখল করে নেয় বিক্ষোভকারীরা। তবে সরকার এ-পর্যন্ত বলপ্রয়োগ করা থেকে বিরত থেকেছে। রেড শার্ট্‌সের কর্মীরা কয়েকবার আন্দোলকদের বিরুদ্ধে পাল্টা সমাবেশ করার মধ্য দিয়ে সরকারের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন