• নয়াদিল্লির হাইকৌর্টে স্যুইটকেইস-বোমা বিস্ফোরিতঃ কমপক্ষে ১১ নিহত ও ৯০ আহত
    India_Blast_0c767.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ৭ সেপ্টেম্বর ২০১১, বুধবারঃ  আজ স্থানীয় সময় সকাল সোয়া দশটায় ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির হাইকৌর্টের প্রধান অভ্যর্থনা কাউন্টারের কাছে একটি শক্তিশালী বোমার বিস্ফোরণ ঘটেছে। স্যুইটকেইসের ভেতরে পেতে রাখা ২ কেজি ওজনের বোমাটির বিস্ফোরণে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১১ জন নিহত এবং অন্তত ৯০ জন আহত হয়েছেন।

    পাকিস্তান-ভিত্তিক ইসলামী-জঙ্গী সংগঠন হরকাত-উল-জিহাদ আল-ইসলাম (হুজি) এক ইমেইল বার্তায় এ-হামলার দায়িত্ব দাবী করেছে। ঐ ইমেইলে জানানো হয়েছে যে, আফজাল গুরু নামক দণ্ডপ্রাপ্ত এক আসামীকে মুক্তি না দিলে ভারত-জুড়ে অনেক আদালতে এ-ধরণের আরও হামলা চালানো হবে। উল্লেখ্য, ২০০১ সালে ভারতের সংসদে হামলা চালানোর দায়ে গুরুকে মৃত্যদণ্ড দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কৌর্ট।

    নিরাপত্তা-কর্মীদের সূত্রে জানা গেছে যে, তাঁরা এ-ইমেইলটির ব্যাপারে আরও তদন্ত করছেন। তড়িঘড়ি করে কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছুতে বা নিশ্চিত না হয়ে কোনো সংগঠনকে দায়ী করতে চাইছেন না তাঁরা। 'এ-ইমেইলটি ধোঁয়াশা সৃষ্টি করে আমাদের মনোযোগ অন্যদিকে ফেরানোর একটি চেষ্টাও হতে পারে' - বলে উল্লেখ করেছেন একজন উর্ধ্বতন নিরাপত্তা কর্মকর্তা।

    যখন এ-ঘটনাটি ঘটলো ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং তখন রাষ্ট্রীয় সফরে বাংলাদেশে। 'সন্ত্রাসবাদের চাপের কাছে আমরা কখনও নতি স্বীকার করবো না' এমন প্রত্যয় ব্যাক্ত করে এক বিবৃতিতে তিনি সকল ভারতবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সন্ত্রাসবাদকে মোকাবেলার আহবান জানান।

    উল্লেখ্য, গত ২৫ মে দিল্লির এ-হাই কৌর্টেরই গাড়ী পার্কিংয়ে একটি বোমা বিস্ফোরণের ব্যর্থ চেষ্টা হয়েছিলো। এ-ঘটনার পরও হাইকৌর্টের অভ্যর্থনায় কোনো সিসিটিভি ছিলো এবং তা কীভাবে সম্ভব হলো তা ভেবে নিরাপত্তা-উদ্বেগ তৈরী হয়েছে সাধারণ নাগরিকদের মধ্যে। 

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন