• পাক-দূতাবাস ঘেরাও ঢাকায়ঃ বাংলাদেশী দূতাবাস হামলার হুমকি পাকিস্তানে
    bangladesh_protest_near_pak_embassy.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১৯ ডিসেম্বর ২০১৩, বৃহস্পতিবারঃ পাকিস্তানের সাথে বাংলাদেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থগিতের দাবীতে দেশটির ঢাকাস্থ দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ জানাতে গিয়ে আজ পুলিসের লাঠির আঘাতে আহত হয়েছেন গণজাগরণ মঞ্চের নেতা ইমরান এইচ সরকার। তাদের কর্মসূচির প্রতিক্রিয়া হিসেবে পাকিস্তানের তালিবান বাংলাদেশী দূতাবাসে হামলার হুমকি দিয়েছে।

    বাংলাদেশে মানবতা-বিরোধী অপরাধে কাদের মোল্লার ফাঁসি-দণ্ড কার্যকর করার নিন্দা করে পাকিস্তানের পার্লামেণ্টের নিম্নকক্ষে প্রস্তাব পাশের প্রতিবাদে গতকাল ঢাকাস্থ দূতাবাস ঘেরাও করতে যায় শাহবাগ আন্দোলন-খ্যাত গণজাগরণ মঞ্চ। এতে পুলিস বাধ দেয় এবং কয়েকজনকে আটক করে যার প্রতিবাদে দাবী মানতে সরকারকে ২০ ঘণ্টার সময় বেঁধে দেয় মঞ্চ। সে-সময় পার হয়ে যাওয়ার পর আজ বিকেলে আবারও দূতাবাসের সামনে গণজাগরণ মঞ্চের লোকেরা বিক্ষোভ প্রদর্শনে গেলে পুলিসের লাঠিচার্জে আহত হয়েছেন এর মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার-সহ আরও কয়েক বিক্ষোভকারী।

    ইমরানকে ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। সে-হাসপাতালেই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে গণজাগরণ মঞ্চের মারুফ রসূল দাবী করেন তাঁদের শতাধিক কর্মী আহত হয়েছেন। একই সাথে পুলিস অন্ততঃ ২০ জনকে গ্রেফতার করেছে। একই সম্মেলনে তিনি নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন যার মধ্যে রয়েছে, আগামী কাল শুক্রবার শাহবাগে সমাবেশ এবং দেশব্যাপী গড়ে ওঠা গণজাগরণ মঞ্চের শাখাগুলোতে একযোগে বিক্ষোভ।

    এদিকে পাকিস্তানে বাংলাদেশের দূতাবাসে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা করা হচ্ছে। দেশটির গুরুত্বপূর্ণ ইংরেজী দৈনিক দ্য নেশন তেহরিক-ই-তালিবানের হামলার হুমকির খবর প্রচার করেছে। এ-পরিস্থিতিতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে দূতাবাস ভবন ও কূটনীতিকদের। বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র শামীম আহসান স্থানীয় ইণ্টারনেট-ভিত্তিক সংবাদ-মাধ্যম বিডিনিউজ২৪.কম-কে জানান, "[পাকিস্তানী কর্তৃপক্ষ] নিশ্চিত করেছে, আমাদের দূতাবাস ও সেখানে নিয়োজিত কর্মকর্তাদের নিরাপত্তায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।"

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন