• পারমাণবিক প্রকল্প বিষয়ে ইরানের সাথে ছয় বিশ্ব-শক্তির ঐতিহাসিক সমঝোতা

    ইউকেবেঙ্গলি - ২৪ নভেম্বর ২০১৩, রোববারঃ কিছুক্ষণ আগে সুইৎসারল্যাণ্ডের জিনিভায় ছয় বিশ্ব-শক্তি ইরানের পারমাণবিক প্রকল্প বিষয়ে দেশটির সাথে একটি সমঝোতায় উপস্থিত হয়েছে। ইরানের পররাষ্ট্র-মন্ত্রী জাভেদ জারিফ ট্যুইটারের মাধ্যমে এ-সংবাদ জানিয়েছেন, যা ফরাসী প্রতিনিধিরাও নিশ্চিত করেছেন বলে জানিয়েছে রাশিয়া টুডে টিভি।

    আজ জিনিভার স্থানীয় সময় ভোর ৩টার দিকে সমঝোতাটি চূড়ান্ত হয়। ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র ও নিরাপত্তা নীতি সম্পর্কিত প্রতিনিধি এবং ইউরোপীয় কমিশনের ভাইস প্রেসিডেণ্ট ক্যাথেরিন অ্যাশটনের মুখপাত্র মাইকেল মানও ইরানি পররাষ্ট্র মন্ত্রীর অনুরূপ এক ট্যুইটার বার্তায় নিশ্চিত করেছেন ইরানের সাথে সমঝোতার সংবাদ।

    জাতিসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের ৫ সদস্য ও জার্মানীকে একত্রে সাধারণতঃ পি৫+১ নামে অভিহিত করা হয়। এই পি৫+১ গত কয়েক সপ্তা ধরে ইরানের সাথে ঘন-ঘন বৈঠকে বসে পারমাণবিক প্রকল্পের ব্যাপারে একটি ফয়সালায় পৌঁছুতে চেষ্টা করে আসছে।

    তবে মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম ঘনিষ্ঠ মিত্র ইসরায়েল বিরোধীতা করে আসছিলো ইরানের সাথে পশ্চিমাদের কোনো ধরণের চুক্তির। তাদের আকাঙ্খা সিরিয়াকে যেমন করে রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংস করতে বাধ্য করা হয়েছে, তেমনি ইরানেরও পারমাণবিক প্রকল্প উন্নয়নের সকল সুযোগ রহিত করা হোক।

    উল্লেখ্য, ইসরায়েল ও পশ্চিমাদের অভিযোগ, ইরান পারমাণবিক বোমা তৈরির চেষ্টা করছে। ইরান বরাবরই এ-অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে - তাদের দাবি পারমাণবিক প্রকল্পের উদ্দেশ্য মূলতঃ জ্বালানী ও চিকিৎসা গবেষণা।

    এখনও পর্যন্ত পি৫+১ ও ইরানের মধ্যকার চুক্তির বিস্তারিত জানা জায়নি। তবে পশ্চিমা একজন কূটনীতিকের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, এর আওতায় পারমাণবিক প্রকল্প স্থগিত করার বিনিময়ে ইরান পশ্চিমাদের হাতে হিমায়িত থাকা তার অর্থের মধ্য থেকে ৪.২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ফিরে পাবে। এদিকে, ইরানের ফার্স নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, এ-চুক্তির অধীনে ইরান ইউরেনিয়ামের '২০% সমৃদ্ধকরণ' বন্ধ করে, নিম্নতর মাত্রার '৫% সমৃদ্ধকরণ' চালিয়ে যেতে সম্মত হয়েছে।

    এর আগে গতকাল, রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী সের্গেই ল্যাভ্রভ বলেছিলেন, ইরানের পারমাণবিক প্রকল্প নিয়ে অচলাবস্থা দ্রুতই কাটবে বলে তিনি আশাবাদী। রুশ এ-মন্ত্রীর বিচক্ষণ কুটনৈতিক তৎপরতায় সিরিয়ায় সেপ্টেম্বর মাসে সম্ভাব্য মার্কিন হামলা বন্ধ হয় এবং প্রেসিডেণ্ট বাশার আল-আসাদ সকল রাসায়নিক অস্ত্র ত্যাগে সম্মত হন।

     

    সর্বশেষ আপডেইটঃ লণ্ডন সময় রোববার ২৪ নভেম্বর ২০১৩ ভোর ৪:১০ মিনিট


আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন