• পার্লামেন্টে এনএইচএস বিল পাসঃ ঈস্টারের আগেই আইনে পরিণত হবে
    NHS-Bill-passed.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ২০ মার্চ ২০১২, মঙ্গলবারঃ  বহু বিতর্কিত ও বিরোধিত ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস সংস্কার প্রস্তাব আজ লেবার পার্টির সৃষ্ট শেষ প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করে পার্লামেন্টের হাউস অফ কমন্সে পাস হয়ে গেলো, যা ঈস্টারের ছুটির আগেই আইনে পরিণত হবে বলে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে।

    সম্ভাব্য ‘রিস্ক এ্যাসেসমেন্ট’ প্রকাশ না করা অবধি এনএইচএস সংস্কারের বিষয়টি চূড়ান্ত বিবেচনায় না আনার জন্য এমপিদের প্রতি আহবান করে আজকের জন্য পার্লামেন্টে একটি বিতর্কের আবেদন করেছিলো লেবার পার্টি।

    হাউস অফ কমন্সে লেবার-অনুরোধিত শেষ-বিতর্কের পর কনসার্ভেটিভ ও লিবডেমের জোট-সরকারের আনীত বিলটি ২৪৬ ভৌটের বিপরীতে ৩২৮ ভৌটে তার শেষ বাধা অতিক্রম করে।

    লেবার-দলীয় শ্যাডৌ হেলথ সেক্রেট্যারী এ্যাণ্ডি বারহ্যাম বলেন, ‘এনএইচএসের ভবিষ্যত সম্পর্কে উদ্বিগ্ন মানুষের প্রতি আমি আজ এই আশাটুকুই দিতে পারি যে, ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস বিলের আজ শেষ হয়ে থাকতে পারে, কিন্তু এটি আমাদের ক্যাম্পেইনের সূচনা মাত্র।’

    তবে হেলথ সেক্রেট্যারী এ্যাণ্ডুর ল্যান্সলী বিরোধি দলের প্রতি আক্রমণ করে আজ কমন সভাতে বলেন, ‘সত্য হলো, এটি হচ্ছে আদর্শের পোশাক পরে রাজনৈতিক সুবিধাবাদ। এই বিতর্কের কনো উদ্দেশ্য নাই।’

    উল্লেখ্য, বিলটিকে আইনে পরিণত হতে হলে রানি এলিজাবেথ দ্বিতীয়ার স্বাক্ষর নিয়ে পার্লামেন্ট ফেরত আসতে হবে, ঈস্টারের আগেই সম্পন্ন হবে।

    দীর্ঘ-কালের প্রতিষ্ঠিত ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস, যাকে যুক্তরাজ্যের কল্যাণ রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থার অহংকার হিসেবে বিশ্বে বিবেচিত হতো, তার মধ্যে আমূল পরিবর্তন এনে আইন প্রস্তাব বা  বিল করা হয়েছিলো এক বছর আগে। কিন্তু প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত স্বাস্থ্য-পেশাজীবীদের বিরোধিতা সত্ত্বেও সরকার বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে বিলটি পাস করিয়ে নেয়।

    বিলটিতে যেভাবে সেবা-দানের ক্ষেত্রে ‘কম্পিটিশন’, রোগীদের ‘চয়স’, জিপিদের ‘কমিশনিং’ ও আর্থিক ‘কন্ট্রৌল’ ইত্যাদি ধারণা প্রবর্তন করা হয়েছে, তাতে বস্তুতঃ ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের প্রাইভেটাইজেশন করা হবে।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন