• পূর্ব ইউক্রেনের দনেৎস্ক ও লুহান্‌স্কে গণভৌটঃ স্বাধীনতার পক্ষে রায়ের সম্ভবনা
    ukraine_donetsk_referendum_large_turnout.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১১ মে ২০১৪, রোববারঃ নির্বাচিত প্রেসিডেণ্টের অপসারনের পর থেকে শুরু হওয়া রাজনৈতিক সহিংসতার মাঝে আজ ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দনেৎস্ক ও লুহান্‌স্ক প্রদেশে স্বাধীনতার গণভৌট অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিদ্রোহীদের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, রুশ-ভাষাভাষী সংখ্যাগরিষ্ঠ এ-অঞ্চলদুটোর আনুমানিক ৭০ শতাংশ ভৌটার তাঁদের ভৌট দিয়েছেন। প্রাথমিক গণনায় দেখা যাচ্ছে যে, স্বাধীনতার পক্ষে প্রায় ৮৯ শতাংশ ভৌট পড়েছে। নির্বাচনের আয়োজক কর্তৃপক্ষ আশা করছে, ভোর নাগাদ সমস্ত ভৌট গণনা সমাপ্ত হবে।

    ইউক্রেনের অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেণ্ট অলেক্সান্দর তুর্চিনভ এ-গণভৌটকে বেআইনী বলে আখ্যা দিয়েছন। যদিও তিনি স্বীকার করেছেন যে পূর্বাঞ্চলীয় বহু নাগরিক বিদ্রোহীদেরকে সমর্থন করছেন। অন্যদিকে, বিদ্রোহীদের একজন নেতার উদ্ধৃতি দিয়ে আরটি জানিয়েছে, শীঘ্রই দনেৎস্কে নতুন সরকার-কাঠামো ও সেনাবাহিনী গড়ে তোলা হবে।

    গত ফেব্রুয়ারিতে প্রেসিডেণ্ট ভিক্টর ইয়ানুকোভিচকে সহিংসভাবে অপসারনের পর  উগ্র ডানপন্থীদের অংশগ্রহণে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার ক্ষমতা গ্রহণ করে। এর ফলস্বরূপ, জাতীয়ভাবে সংখ্যালঘু কিন্তু পূর্ব ও দক্ষিণাঞ্চলে সংখ্যাগুরু জাতিগত রুশ জনগোষ্ঠীর মধ্যে বিদ্রোহ দাঁনা বেঁধে ওঠে। এ-বিদ্রোহের পেছনে রাশিয়ার মদত রয়েছে বলে দাবি করে পশ্চিমা সমর্থিত রাজধানী কিয়েভ কর্তৃপক্ষ, কিন্তু মস্কো সে-অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

    গত মার্চে কৃষ্ণ সাগরতীরস্থ দক্ষিণ ইউক্রেণের ক্রাইমিয়া রিপাবলিক গণভৌটের মাধ্যমে ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হয় এবং পরে আনুষ্ঠানিকভাবে রাশিয়া ফেডারেশনে যোগ দেয়। একই সময় পূর্বাঞ্চলীয় দনেৎস্ক, লুহান্‌স্ক ও খার্কিভ প্রদেশেও সরকার-বিরোধী বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভকারীরা 'আত্মরক্ষা দল' নামে সশস্ত্র মিলিশিয়া গড়ে তুলেছে, যাতে অন্তর্ভূক্ত হয়েছে স্থানীয় পুলিস ও অন্যান্য নিরাপত্তা-রক্ষীরা। কিয়েভ দাবি করছে রাশিয়ার 'বিশেষ বাহিনী' এদেরকে প্রশিক্ষণ ও সমর্থন করছে, যা রুশ কর্তৃপক্ষ অস্বীকার করেছে।

    প্রায় মাসাধিককাল ধরে পূর্বাঞ্চলীয় অন্ততঃ ১২টি নগরীর প্রশাসনিক ভবন দখল করে রেখছে বিদ্রোহী মিলিশিয়ারা। এপ্রিলের ৭ তারিখে দনেৎস্কের বিদ্রোহীরা স্বাধীন জনতন্ত্র ঘোষণা করে। স্বাধীনতার পক্ষে জন রায় রয়েছে কি-না তা যাচাই করতেই আয়োজিত হয়েছিলো আজকের গণভৌট।

    গেটি ইমেজের প্রকাশিত ছবিতে দেখা যাচ্ছে দীর্ঘ সারিতে দাঁড়িয়ে ভৌট দিতে অপেক্ষা করছেন ভৌটাররা। ব্রিটেইনের আইটিভির ইউরোপ সংবাদ সম্পাদক জেইম্‌স মেট্‌স জানিয়েছেন 'হাজার হাজার' ভৌটার অংশ নিয়েছেন এ-গণভৌটে। একজন নারী ভৌটার তাঁকে বলেন, "আমরা নাৎসী ইউক্রেনের সাথে থাকতে চাই না, আমরা স্বাধীনতা চাই।"

    রাশিয়ায় বসবাসকারী ইউক্রেনীয় নাগরিকদের জন্যও একই ব্যালটে এ-গণভৌটে অংশ নেওয়ার জন্য ভৌটকেন্দ্র খোলা হয়েছিলো মস্কোয়।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন