• প্রাক্তন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী 'লৌহমানবী' মার্গারেইট থ্যাচারের প্রয়াণ
    uk_thatcher_closeup1.png

    ইউকেবেঙ্গলি - ৮ এপ্রিল ২০১৩, সোমবারঃ  ব্রিটেইনের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মার্গারেট থ্যাচার মারা গিয়েছেন আজ সকালে। মৃত্যুকালে রক্ষণশীল এ-রাজনীতিকের বয়স হয়েছিলো ৮৭ বছর। ব্রিটেইনের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী লেডি থ্যাচার ১৯৭৯ সাল থেকে ১৯৯০ পর্যন্ত ব্রিটেইনের সরকারের নেতৃত্ব দেন।

    বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ডেইভিড ক্যামেরোন  থ্যাচারকে  'শান্তিকালীন শ্রেষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী' আখ্যায়িত করে বলেছেন, 'তিনি শুধু আমাদের দেশকে নেতৃত্বই দেননি, রক্ষা করেছেন'। প্রসঙ্গতঃ ফকল্যাণ্ডের দ্বীপের ওপর অধিকারের প্রশ্নে তাঁর নেতৃত্বে ব্রিটেইন আর্জেণ্টিনার সাথে যুদ্ধে লিপ্ত হয়।

    অবশ্য তাঁর রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের অনেকে এখনও মনে করে যে, 'থ্যাচার জাতিকে ঐক্যবদ্ধ নয়, বিভক্ত করেছেন'। তাঁর অর্থনৈতিক সংস্কার প্রকল্পের কারণে ৩০ লাখেরও বেশি মানুষ বেকার হয়ে যাওয়ার কথা এখনও নাগরিকদের স্মৃতিতে জাগরুক - দাবি তাদের।

    থ্যাচারের প্রতি বিরাগের প্রকাশ দেখিয়ে ব্রিটেইনের অনেক জায়গায় 'স্ট্রীট পার্টি' অনুষ্ঠিত হয়েছে - এর মধ্যে লণ্ডনের ব্রিক্সটন ও স্কটল্যাণ্ডের গ্লাস্‌গৌ র খবর দিয়েছে ডেইলি  ইণ্ডিপেণ্ডেণ্ট । এসব পার্টিতে 'ডাইনি মরেছে', 'ম্যাগি ম্যাগি ম্যাগি, মরেছে মরেছে মরেছে' এধরণের স্লৌগান দেয়া হয়।

    লেবার পার্টি ও লিবারেল ডেমৌক্রেট পার্টি থ্যাচারের প্রতি সম্মান দেখাতে তাদের সদ্য শুরু করা কাউণ্টি কাউন্সিল নির্বাচনী প্রচারণা স্থগিত করেছে।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন