• বঙ্গজা ব্যারোনেস উদ্দিনের পর এবার পাকিজা ব্যারোনেস ওয়ার্সি বাড়ীভাড়া কেলেঙ্কারীতে
    Lady-Warsi.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ২৮ মে ২০১২, সোমবারঃ  বাঙালী বংশোদ্ভূত ব্যারোনেস পলা মঞ্জিলা উদ্দিন দুবছর আগে মিথ্যা বাড়ীভাড়া দাবীর কেলেঙ্কারীতে নাস্তানাবুদ হবার স্মৃতি ফিকে হবার আগেই এবার একই কেলেঙ্কারীতে পড়লেন পাকিস্তানী বংশোদ্ভূত ব্যারোনেস সাঈদা ওয়ার্সি। গতকাল সানড্যে টাইমস লেইডি ওয়ার্সির বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে বলেছে যে, বাড়ী-ভাড়া না দিয়ে বাস করেও থেকেও তিনি মাসে ২,০০০ পাউণ্ড পর্যন্ত বাড়ী-ভাড়া বাবত ‘ক্লেইম’ করেছেন, যা লেইডি উদ্দিনও করেছিলেন এবং কাকতালীয়াভাবে ২০০৯ সালের মে মাসেই তা উন্মোচিত হয়ে পড়ে।

    সানড্যে টাইমস অভিযোগ যে, মিথ্যে বাড়ী-ভাড়া দাবী করার সাথে-সাথে লেইডি ওয়ার্সি তাঁর বিভিন্ন আয়ের কিছু-কিছু লর্ডসভার ‘রেজিস্টার অফ ইন্টারেস্টে’ প্রকাশ করতে ব্যর্থ হয়েছেন। উল্লেখ্য, লেইডি ওয়ার্সি ক্ষমতাসীন জোটের বড়ো শরিক কনসার্ভেটিভ পার্টির কো-চেয়ারম্যান।

    এই মুহূর্তে মালেসিয়াতে সফররত লেইডি ওয়ার্সিকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি  আইটিভিকে বলেন, ‘আমি এ-অভিযোগগুলো অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে নিয়েছি। এ-কারণেই আমি প্রথমেই বলেছি, যে-কোনো তদন্তে আমি পূর্ণ সহযোগিতা করবো। আমি বিশ্বাস করি, হাউস অফ লর্ডসের সদস্য হওয়া একটি বিশেষাধিকার লাভ করা। আমি আমার এই বিশেষাধিকার গুরুত্বের সাথে নিই।’

    এদিকে বিরোধী দল লেবার পার্টির এমপি জন মান পার্লামেন্টের কমিশনার ফর স্ট্যাণ্ডার্ডসের মাধ্যমে অভিযোগের তদন্ত দাবী করেছেন।

    অভিযোগের তদন্ত চলাকালে তিনি লর্ডসভা থেকে সরে দাঁড়াবেন কি-না প্রশ্নের উত্তরে লেইডি ওয়ার্সি কোনো  উত্তর দেননি।  তবে স্ট্যাণ্ডার্ডস ইন পাবলিক লাইফ কমিটীর প্রাক্তন চেয়ারম্যান স্যার অ্যালিস্টার গ্রাহাম বলেছেন, পূর্ণ তদন্ত সমাপ্ত না হওয়া পর্যন্ত লর্ডসভায় বসা থেকে লেইডি ওয়ার্সির বিরত থাকা উচিত।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন