• বাংলাদেশে আঘাত করেছে ঘুর্ণিঝড় মহাসেনঃ মংলা ও চট্টগ্রাম বন্দর বিপদমুক্ত
    bd_mahasen_cyclone_coxsbazar.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১৬ মে ২০১৩, বৃহস্পতিবারঃ বঙ্গোপসাগরের ঘুর্ণিঝড় মহাসেন আজ আঘাত হেনেছে বাংলাদেশের উপকূলস্থ অঞ্চলসমূহে। ইতোমধ্যেই ৫ জনের মৃত্যুর সংবাদ জানিয়েছে রয়টার্স। তবে এটি ২০০৭ সালের সিডর বা ১৯৯১ সালে প্রলয়ঙ্করী ঘুর্ণিঝড়ের মতো শক্তিশালী নয়, বলেছেন আবহাওয়াবিদরা।

    এ-মাসের শুরুতে গভীর সমুদ্রে ক্ষুদ্র আকারে এ-ঝড়টির উৎপত্তি হয়ে দু-সপ্তাহের মধ্যে এটি পূর্ণমাত্রার ঘুর্ণিঝড়ে রূপ নেয়। শ্রীলঙ্কার কাছাকাছি সমুদ্র বেয়ে এটি উত্তরাভিমুখে যাত্রা করে এবং বঙ্গোপসাগরে এসে আরও শক্তি অর্জন করে। এ-প্রতিবেদন লেখার সময় ঝড়টি বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে ফেনী-নোয়াখালি অঞ্চল অতিক্রম করে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের দিকে অগ্রসর হচ্ছিলো। তবে ইতোমধ্যেই এটি শক্তি হারিয়ে একটি নিম্ন-চাপে রূপ নিয়েছে এবং ক্রমশ দূর্বল হয়ে পড়ছে।

    এ-মুহূর্তে মহাসেনের প্রভাবে আক্রান্ত এলাকায় ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার বেগে বাতাস বইছে। ঝড়টি নিজে ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার বেগে ত্রিপুরার দিকে ধাবিত হচ্ছে। ঝড়ের কারণে উপড়ে যাওয়া গাছের নিচে চাপা পড়ে বাংলাদেশের পটুয়াখালী, বরগুনা ও ভোলায় শিশুসহ অন্ততঃ ৪ ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছেন। ঐ এলাকাগুলোতে ঝড়ে বিধ্বস্থ হয়েছে হাজার-হাজার ঘর-বাড়ী।

    ঝড়াক্রান্ত অঞ্চলসমূহের অনেক স্থানে ৫ ফুট পর্যন্ত উচ্চতার সাময়িক জলোচ্ছাসের সংবাদ দিয়েছে কোনও-কোনও সংবাদ-মাধ্যম।

    তবে মংলা ও চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর বড়ো কোন ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়নি। কক্সবাজারকেও ইতোমধ্যেই 'আশঙ্কামুক্ত' ঘোষণা করেছে বাংলাদেশের আবহাওয়া বিভাগ। যদিও গত দু'দিন ধরে চলে আসা টানা বর্ষণে প্রায় সমগ্র দক্ষিণাঞ্চলেই জীবনযাত্রা ব্যহত হচ্ছে।

    বাংলাদেশে মহাসেন পৌঁছার আগে, শ্রীলঙ্কার কাছাকাছি পথে আসার সময় ঝড়ের ঘুর্ণি-কেন্দ্রের বহিঃস্থ মেঘের প্রভাবে দেশটিতে ব্যাপক ভারীবর্ষণ ঘটে, যার ফলে সেখানে বন্যা দেখা দিয়েছে।

    শ্রীলঙ্কার প্রাচীন রাজা ছিলেন মহাসেন নামে, তাই দেশটির জাতীয়তাবাদীরা তাঁর নামে ধ্বংসাত্মক এ-ঝড়ের নামকরণে নাখোশ হয়েছেন। গত সপ্তায় বঙ্গোপসাগরে ঝড়টি শক্তি সঞ্চয় করলে ভারতের আবওহাওয়া বিভাগ এটিকে মহাসেন নামে ডাকতে শুরু করে। উল্লেখ্য, এর আগে আঞ্চলিক সকল বড়ো ঝড়কেই নারী-নামেই ডাকা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন