• বাংলাদেশে পুলিসের 'সাঁড়াশি' অভিযান শুরুঃ ৩ সহস্রাধিক গ্রেফতারিতের মধ্যে ১.১৫% সন্দেহিত 'সন্ত্রাসী'
    bd_police.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১১ জুন ২০১৬, শনিবারঃ বাংলাদেশে সন্ত্রাস দমনের লক্ষ্যে গতকাল থেকে শুরু হওয়া পুলিসী অভিযানে এক দিনে অন্ততঃ ৩ হাজার ১৯২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে, যাদের মধ্যে ৩৭ জনকে 'জঙ্গি' বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। পুলিসের পক্ষ থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তির বরাতে এ-সংবাদ প্রচার করেছে বাংলাদেশের প্রথম আলো, কালের কণ্ঠ, যুগান্তর-সহ প্রায় সকল দৈনিক ও ব্রিটেইনের বিবিসি ও অন্যান্য সংবাদমাধ্যম।

    বাংলাদেশের সমসাময়িক রাজনৈতিক ভাষ্যে 'জঙ্গি' বলতে মূলতঃ 'ইসলামবাদী সন্ত্রাসী' বুঝানো হয়। গতকাল গ্রেফতারিত এমন ৩৭ জন সন্দেহিত 'জঙ্গি'র মধ্যে ২৭ জন জেমবি এবং ৭ জন জাগ্রত মুসলিম জনতা বাংলাদেশ নামক নিষিদ্ধ সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত বলে দাবী করা হয়েছে। বাকি ৩ জনের পরিচয় সম্পর্কে পুলিস বিস্তারিত কিছু জানায়নি, যাদের সকলকেই ঢাকা থেকে আটক করা হয়েছে।

    এদিকে, গত পাঁচ দিনে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে পুলিসের সাথে কথিত 'বন্দুকযুদ্ধ' বা 'ক্রসফায়ারে' প্রাণ হারিয়েছেন অন্ততঃ ৬ ব্যক্তি। অবশ্যা পুলিস দাবী করেছে এ-ঘটনাগুলো চলমান 'জঙ্গী দমন অভিযানের সাথে সম্পর্কিত নয়'।

    বাংলাদেশের প্রধান বিরোধীদল বিএনপি বলছে, এ-অভিযানের আড়ালে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ তার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে টার্গেট করছে। দলটির সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফখরুল ইসলাম বার্তাসংস্থা এএফপি'র কাছে দাবী করেছেন শতোশতো সরকার-বিরোধী রাজনৈতিক কর্মীকে আটক করা হয়েছে এ-অভিযানে।

    মানবাধিকার সংগঠন আইন ও শালিস কেন্দ্র এ-অভিযানের ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছে, সাধারণ মানুষের হয়রানির তথ্য বিগত অভিযানগুলোতে তারা পেয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক নুর খান লিটন বলেন, এ নিয়ে দুর্নীতি বা 'গ্রেপ্তার বাণিজ্যের' অভিযোও তাঁরা শুনেছেন।

    ২০১৩ সাল থেকে বাংলাদেশে সন্দেহিত 'ইসলামবাদী' সন্ত্রাসীরা গুপ্ত হত্যা করে চলেছে - প্রধানতঃ চাপাতির মতো ধারালো অস্ত্র ব্যবহার করে। তাদের আক্রমণে এ-পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছে লেখক, ব্লগার, অধ্যাপক, ইসলামী পীর, হিন্দু পুরোহিত, বৌদ্ধ ভান্তে ইত্যাদি নানা শ্রেণি ও পেশার মানুষ। অতি সম্প্রতি পুলিসের একজন কর্মকর্তার স্ত্রীকে হত্যা করা হলে পুলিস সাঁড়াশি অভিযানের ঘোষণা দেয়।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন