• বার্মার উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার নয়, স্থগিত করা হোকঃ ডেইভিড ক্যামেরোন
    Cameron-and-Suu-Kyi.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১৩ এপ্রিল ২০১২, শুক্রবারঃ  প্রধানমন্ত্রী ডেইভিড ক্যামেরোন আজ বার্মার রাজধানী রেঙ্গুনে বিরোধী-দলীয় নেত্রী অং সান সূ কীয়ির সাথে তাঁর বাসভবনে সাক্ষাত করে আলোচনা-শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জানান, বার্মার উপর আরোপিত ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞা স্থগিত করা উচিত, তবে সম্পূর্ণরূপে প্রত্যাহার নয়।

    দূরপ্রাচ্যের পাঁচ দিনের বাণিজ্য সফরের শেষ দিনে আজ বার্মায় এসে ক্যামেরোন সাক্ষাত করেন গণতন্ত্রের জন্য দীর্ঘ ১৫ বছর গৃহবন্দীত্ব ভোগ করা ও নোবেল শান্তি পুরষ্কার প্রাপ্ত রাজনীতিক অং সান সূ কীয়ির সাথে। বস্তুতঃ পারস্পরিক অর্থনৈতিক স্বার্থের প্রয়োজনে বার্মার সাথে পশ্চিমা দুনিয়ার সু-সম্পর্ক গড়ে তোলার অংশ হিসেবে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর এই পদক্ষেপকে দেখা হচ্ছে।

    প্রাক্তন ব্রিটিশ উপনিবেশ বার্মা সম্পর্কে ব্রিটেইনের প্রধানমন্ত্রী ক্যামেরোন বলেন, গণতন্ত্রের দিকে পদক্ষেপের জন্য দেশটির পুরষ্কৃত হওয়া উচিত। তবে পুরষ্কৃত করার ব্যাপারে সতর্কতা অবলম্বন করে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি বার্মার বিরুদ্ধে যে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে তার প্রত্যাহার নয় - স্থগিত করাটাই ঠিক হবে।’

    দারিদ্রও স্বৈরশাসনের ভেতর দিয়ে যাবার ঘটনা উল্লেখ করে ক্যামেরোন বলেন, ‘বার্মা যতোটুকু দরিদ্র, ততোটুকু হওয়া উচিত ছিলো না, স্বৈরশাসনের অধীনে এই ভোগান্তি উচিত হয়নি, যা দীর্ঘ-কাল ধরে হয়েছে এবং পরিস্থিতির এরকম হওয়ার দরকার ছিলো না।’

    তবে তিনি পরিবর্তনের সম্ভাবনাকে নির্দেশ করে সূ কীয়ির উদ্দেশ্যে বলেন প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘পরিবর্তনের প্রকৃত সম্ভাবনা আছে এবং আপনার দেশ যাতে ঐ সকল পরিবর্তন নিশ্চিত করা করতে পারে, তার সাহায্যে আমি আপনার সাথে কাজ করার জন্য সংকল্পবদ্ধ।’

    বার্মাতে ঘটমান পরিবর্তন যাতে স্থায়ী হয়, তার প্রতি ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রী ক্যামেরোন বলেন, ‘আমাদেরকে সাবধনতা ও সতর্কতার সাথে সাড়া দিতে হবে ... যাতে ঐ পরিবর্তনগুলো পরিবর্তনযোগ্য না হয়। তাই, আমি মনে করি, নিষেধাজ্ঞা স্থগিত করা উচিত - প্রত্যাহার নয়।’

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন