• বিতর্কিত দ্বীপের কাছে চীনের গ্যাস অনুসন্ধানের সন্দেহঃ ক্ষিপ্ত জাপানের নৌযান প্রেরণের প্রস্তুতি
    japan_china_disputed_islands_drilling.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১৮ জুলাই ২০১৩, বৃহস্পতিবারঃ  উত্তর চীন সাগরে কয়েকটি ক্ষুদ্র দ্বীপের মালিকানা নিয়ে বিরোধপূর্ণ চীন-জাপান সম্পর্কে নতুন করে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। জাপানের নিয়ন্ত্রণে থাকে দ্বীপগুলোর কাছাকাছি চীন গ্যাস অনুসন্ধানে খননকার্য চালাচ্ছে এমন সংবাদে ক্ষিপ্ত জাপান তার নৌবহর প্রেরণের প্রস্তুতি নিয়েছে। খবর রয়টার্সের।

    জাপানীদের কাছে সেঙ্কাকু ও চীনাদের কাছে দিয়াওয়ু নামে পরিচিত ক্ষুদ ৫টি দ্বীপের সমন্বয়ে গঠিত এ দ্বীপপুঞ্জ বর্তমানে জাপানের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ১৮৯৫ সালের চীন-জাপান যুদ্ধ শেষে এগুলো জাপানীদের কব্জায় আসে। চীনে দীর্ঘদিন ধরে দিয়াওয়ু দ্বীপপুঞ্জের অধিকার দাবি করে আসছে। ১৯৬৮ সালে জানা যায় যে এ-দ্বীপের সন্নিহিত এলাকায় গ্যাস থাকার প্রবল সম্ভবনা রয়েছে।

    চীনের রাষ্ট্রায়াত্ব তেল-গ্যাস অনুসন্ধান সংস্থা উত্তর চীন সাগরে নতুন সাতটি গ্যাসক্ষেত্রের বিকাশ ঘটাবে, সংবাদ মাধ্যমে প্রচারিত এমন সংবাদের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে জাপান। উত্তর চীন সাগরে চীনের গ্যাসক্ষেত্র 'আর না বাড়াতে' সতর্ক করেছে দেশটি।

    উত্তেজনাপূর্ণ এ-অবস্থায় আজ ভোরে চীনের তিনটি জাহাজের একটি বহরকে জাপানের জলসীমায় প্রবেশ করতে দেখেছে সেদেশের কৌস্টগার্ড বা জলসীমা-রক্ষী বাহিনী। বেইজিং বলছে, এটি ছিলো 'নিয়মিত টহলের অংশ'। পরে অবশ্য চীনের জাহাজগুলো জাপানী জলসীমা ত্যাগ করে কাছাকাছি অবস্থায় নেয়। উল্লেখ্য, চীন-জাপান উভয়ে দেশের নৌযানই বিতর্কিত এলাকায় নিয়মিত টহল দেয়।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন