• বিদ্রোহী সাইপ্রাসের বেইল-আউট গ্রহণে অস্বীকৃতিঃ রাশিয়ার সাহায্য চাইতে পারে
    cyprus_rejects_bailout.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ২০ মার্চ ২০১৩, বুধবারঃ  সাইপ্রাসের পার্লামেণ্ট ইউরোপীয় ইউনিয়ন, ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক ও আইএমএফ-এর বেইল-আউট ঋণ নিতে অস্বীকার করেছে। ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ায় দেশটির ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থাকে ইউরোপ থেকে বিচ্ছিন্ন করা হুমকী দিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

    নাগরিকদের ব্যাঙ্কে সঞ্চিত অর্থের উপরে প্রায় দশ শতাংশ পর্যন্ত করারোপ করে ৫.৮ বিলিয়ন ইউরো যোগাড় করা হবে, এমন শর্তে সাইপ্রাসকে ১০ বিলিয়ন ইউরোর বেইল-আউট ঋণ দেয়ার প্রস্তাব দেয় উক্ত সংস্থা তিনটি। অনুরূপ অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে গ্রীসকেও ঋণ দেয়ার পর থেকে এ-সংস্থাগুলো সম্মিলিতভাবে 'ত্রৈইকা' নামে কুখ্যাত হয়ে উঠেছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সাইপ্রাসের আতঙ্কিত জনগণ গণহারে অর্থ উত্তোলন করতে শুরু করলে নগদ অর্থের সঙ্কট দেখা দেয় - তাই সকল ব্যাঙ্ক বন্ধ রয়েছে এ-মূহুর্তে।

    গতকাল সাইপ্রাসের পার্লামেণ্টে ত্রৈকার বেইল-আউট নেয়া-না-নেয়ার সিদ্ধান্তে সাংসদরা ব্যাপকহারে না-এর পক্ষে ভৌট দেন। দৃশ্যতঃ প্রতিবেশী গ্রীসে ত্রৈকার বেইল-আউট পরবর্তী সামাজিক অস্থিরতার অভিজ্ঞতায় প্রভাবান্বিত হয়ে থাকবেন তাঁরা।

    মন্দায় পড়ে অর্থ সাহায্য চাওয়া ইইউ'র অন্য সদস্যরা - গ্রীস, পর্তুগাল, ইতালি, আয়ারল্যাণ্ড ও স্পেইন - ত্রৈকার শর্ত মেনে নিয়ে স্ব-স্ব দেশে রাষ্ট্রীয় সেবা ও ব্যয়ে কৃচ্ছতার কর্মসূচি শুরু করতে বাধ্য হয়েছে। তাই সাইপ্রাসের 'বিদ্রোহে' অবাক হয়ে গিয়েছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদর দপ্তর ব্রাসেলসের কর্মকর্তারা।

    ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের পক্ষে সাইপ্রাসের সাথে আলোচনার প্রধান আলোচক জোয়ের্গ এ্যাসমুশেন বলেছেন, 'দ্রুত বেইল-আউট না নিলে সাইপ্রাসের ব্যাঙ্কগুলোকে আমাদের বিচ্ছিন্ন করে দিতে হতে পারে'। জার্মান সাপ্তাহিক দাই জেইতকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি আরও বলেন, 'সাহায্য-প্রস্তাব মেনে নিলে আমরা জরুরী ভিত্তিতে ব্যাঙ্কগুলোকে তারল্য সহায়তা দিতে পারি'।

    এদিকে সঙ্কটাপন্ন সাইপ্রাস রাশিয়ার সহায়তা চাইতে পারে বলে জোরালো অনুমান শুরু হয়েছে। রাশিয়ার অনেক ধনী ব্যক্তির সঞ্চয় রয়েছে সাইপ্রাসে, ফলে এ-পরিস্থিতিতে তাদের এক-ধরণের ভূমিকার সম্ভবনা অনুমিত হচ্ছে। তার সাথে যোগ হয়েছে এ-মুহূর্তে সাইপ্রাসের জ্বালানী মন্ত্রীর মস্কো সফর। সিটি অফ লণ্ডনের অর্থনীতি বিশ্লেষকরা অনুমান করছেন, রাশিয়ার জ্বালানী সংস্থা গ্যাজপ্রমকে তেল-গ্যাস অনুসন্ধান করতে দেওয়ার বিনিময়ে দেশটি স্বল্প সুদে ঋণ দিতে পারে সাইপ্রাসকে।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন