• ভারতে চলছে ইতিহাসের সর্ববৃহৎ গণতান্ত্রিক নির্বাচনঃ জনমত জরিপে হিন্দু জাতীয়তাবাদীরা এগিয়ে
    india_elections_2014_m_g_k.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১১ এপ্রিল ২০১৪, শুক্রবারঃ বিশ্বের সর্ববৃহৎ গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র নামে পরিচিত ভারতে গত সোমবার শুরু হয়েছে ষোড়শ লোকসভা নির্বাচন। প্রায় সাড়ে একাশি কোটি সম্ভ্যাব্য ভৌটদাতার এ-নির্বাচনকে পৃথিবীর ইতিহাসের বৃহত্তম গণতান্ত্রিক নির্বাচন বলে অভিহিত করা হচ্ছে, যাতে আগামী ১২ই মে পর্যন্ত ভৌট গৃহীত হয়ে ১৬ই মে ফল ঘোষিত হবে।

    ক্রমবর্ধমান দুর্নীতি ও অর্থনৈতিক অনগ্রগতির অভিযোগে ক্ষমতাসীন ন্যাশনাল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে এমনিতেই খানিকটা বেকায়দায় ছিলো বলে মত দিয়েছেন ভারতীয় ও আন্তর্জাতিক রাজনীতি বিশ্লেষকরা। এমন পরিস্থিতিতে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে বিরোধী হিন্দু জাতীয়তাবাদী ভারতীয় জনতা পার্টি - বিজেপি এগিয়ে রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ সকল জনমত যাচাই জরিপে। অন্যদিকে রাহুল গাধিঁর নেতৃত্বাধীন ধর্মনিরপেক্ষ বলে পরিচিত কংগ্রেস পিছিয়ে রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ প্রায় সবগুলো রাজ্যেই।

    সেণ্টার ফর দ্য স্টাডি অফ ডিভোলপিং সৌসাইটিসের পরিচালিত নির্বাচন-পূর্ব সর্বশেষ জরিপে দেখা গিয়েছে বিজেপির নেতৃত্বে জাতীয় গণতান্ত্রিক জোট (ন্যাশনাল ডেমৌক্রেটিক এ্যালায়েন্স) পেতে যাচ্ছে ২৪৬টি আসন। অর্থাৎ লোকসভায় একক সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য প্রয়োজনীয় ৫৪৩ আসনের মধ্যে ২৭২টি জেতার খুব কাছেই রয়েছে বিজেপি। জনমত জরিপ ফলাফলের এ-ধারা যদি মূল নির্বাচনেও বজায় থাকে তবে ভারতের আগামী প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন সম্ভবতঃ নরেন্দ্র মোদি।

    পাঁচ সপ্তাব্যাপী আয়োজিত এ-নির্বাচনের আরেক আলোচিত ব্যক্তি হচ্ছেন আম আদমি পার্টি নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল। দল গঠনের এক বছরের মাথায় গত ডিসেম্বরে দিল্লির আঞ্চলিক নির্বাচনে কংগ্রেসের মূখ্যমন্ত্রী শীলা দিক্ষিতকে পরাজিত করে মূখ্যমন্ত্রী হন তিনি। তবে জন লোকপাল বিল পাস করাতে ব্যর্থ হওয়ার পর এ-বছরের ১৪ই ফেব্রুয়ারি তিনি পদত্যাগ করেন। কারণ হিসেবে তিনি কংগ্রেস ও বিজেপির অসহযোগিতাকে চিহ্নিত করেন। এবারের নির্বাচনে তিনি লড়ছেন বিজেপির নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন