• 'মিলিট্যারি কলোনী' জাপানে মার্কিন-বিরোধী বিরাট বিক্ষোভ
    japan_protests_us_bases.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১৯ জুন ২০১৬, রোববারঃ জাপানের ওকিনাওয়া দ্বীপে আজ অন্ততঃ ৫০,০০০ লোক মার্কিন সেনা-ঘাঁটির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। সম্প্রতি, মার্কিন এক কর্মকর্তার হাতে ২০ বছর বয়েসী এক জাপানী তরুণী ধর্ষিতা ও খুন হলে দেশটির রাজনীতিবিদ ও নাগরিকগণ বিক্ষুব্ধ হয়ে। সে-ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজ বিক্ষোভ প্রদর্শিত হয়, যার সাথে সংহতি জানিয়ে সমাবেশ হয়েছে রাজধানী টোকিওতেও।

    খুন হওয়া জাপানী নারীর নাম রিনা শিমাবুকুরো। এপ্রিল মাস থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। এ-সংক্রান্ত তদন্তের এক পর্যায়ে মার্কিন ঘাঁটির একজন কর্মীকে গ্রেফতার করে জাপানী পুলিস, যার নাম কেনেথ ফ্র্যাঙ্কলিন (৩২)। মিঃ ফ্র্যাঙ্কলিকের দেওয়া তথ্য অনুসারে মিজ শিমাবুকুরোর লাখ খুঁজে পাওয়া যায় মে মাসে। উল্লেখ্য, মিঃ ফ্র্যাঙ্কলিন একজন প্রাক্তন মেরিন সেনা, তবে বর্তমানে তিনি মার্কিন ঘাঁটিতেই বেসামরিক পদে কর্মরত।

    গতমাসে মিঃ ফ্র্যাঙ্কলিন ধরা পড়ার পর জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিঞ্জো অ্যাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন। সে-সময় জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠিয়ে আনুষ্ঠানিকভেবে প্রতিবাদও জানিয়েছিলেন।

    আজকের বিক্ষোভে যোদ দেন ওকিনাওয়ার গভর্নর তাকেশি ওনাগা ও বিরোধী রাজনীতিকরাও, যাতে সকল পক্ষের মধ্যে মার্কিন সেনা-ঘাঁটির বিরুদ্ধ মনোভাব প্রকাশিত হচ্ছে। বিক্ষোভকারীদের প্রদর্শিত ব্যানার ও প্ল্যাকার্ডেও স্পষ্ট মার্কিন-বিরোধী মনোভাব ফুটে উঠেছে। "আমাদের রাগ সীমা অতিক্রম করেছে", "ফিরিও নাও মার্কিন মেরিন(সেনা)" - এমন বক্তব্যধারী প্ল্যাকার্ড দেখা গিয়েছে প্রচুর।

    সমাবেশে অংশ নেওয়া ৫৯ বছর বয়ষ্ক শিক্ষক নোবোরু কিতানো বলেন, "জাপান এখনও মার্কিন সামরিক উপনিবেশ। এই ঘাঁটি তা-ই প্রতীকায়িত করে"।

    দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকেই জাপানে মার্কিন সামরিক ঘাঁটি রয়েছে। রয়টার্স জানাচ্ছে, ওকিনাওয়ার ঘাঁটিগুলোতে ৩০,০০০ সৈন্যসহ প্রায় ৫০,০০০ কর্মী নিযুক্ত রয়েছে। দ্বীপটির প্রায় এক-পঞ্চমাংশই দখল করে রয়েছে হয় মার্কিন সেনা-ঘাঁটি।

    অতীতেও মার্কিন সেনাদের বিরুদ্ধে জাপানী নারী নির্যাতন ও অন্যান্য অপরাধের অভিযোগ উঠেছে। ১৯৯৫ সালে ১২ বছর বয়েসী এক জাপানী কিশোরীকে তিন মার্কিন সেনা ধর্ষণ করেছিলো। যার পরিপ্রেক্ষিতে জাপ-মার্কিন একমত হয়েছিলো সেনাঘাঁটি অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার, যদিও সে-সিদ্ধান্ত এখনও বাস্তবায়িত হয়নি।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন