• মিসরে টেকনোক্র্যাট সরকারঃ হাজেম প্রধানমন্ত্রী ও এলবারাদি উপ-রাষ্ট্রপতি
    egypt_hazem_new_pm.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ৯ জুলাই ২০১৩, মঙ্গলবারঃ  মিসরের অন্তর্বর্তীকালীন নেতৃত্ব নতুন প্রধানমন্ত্রী ও উপ-রাষ্ট্রপতি হিসেবে যথাক্রমে হাজেম এল-বেবলাওয়ি ও মোহাম্মদ একিবারাদিকে নিয়োগ দিয়েছে। গতকাল সেনাবাহিনীর গুলিতে ৫১ জন মুর্সি-সমর্থক নিহত হওয়ায় উত্তেজক পরিস্থিত বিরাজ করছে, যার মাঝে এ-ঘোষণা এলো।

    ব্যাপক গণবিক্ষোভের মুখে গত ৩ তারিখে মিসরের সেনাবাহনী দেশটির নির্বাচিত প্রেসিডেণ্ট মোহাম্মদ মুর্সিকে জোরপূর্বক অপসারণ করে। জেনারেল এল-সিসি'র নেতৃত্বে সেনাবাহিনী তাঁর স্থলে বিচারপতি আদ্‌লি মানসুরকে অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেণ্ট হিসেবে স্থাপন করেছে।

    গতকাল আদ্‌লি ৭ মাসের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত করার ঘোষণা দেন। দৃশ্যতঃ মিসরের বর্তমান নেতৃত্ব দ্রুত নির্বাচন দিয়ে ক্ষমতা হস্তান্তরের কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। একে স্বাগত জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। উল্লেখ, যুক্তরাষ্ট্র মিসরের সেনাবাহিনীর সবচেয়ে বড়ো আর্থিক সহায়তাকারী, যার পরিমাণ বার্ষিক প্রায় একশো ত্রিশ কোটি ডলার।

    নবনিযুক্ত প্রধানমন্ত্রী হাজেম পেশায় একজন অর্থনীতিবিদ ও মিসরের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। তিনি একটি টেকনোক্র্যাট সরকারের নেতৃত্ব দেবেন। অবশ্য সরকারের অন্যান্য মন্ত্রীর পদে কারা-কারা থাকবেন, তা এখনও নির্ধারিত হয়নি।

    উপ-রাষ্ট্রপতি এল-বারাদি জাতিসঙ্ঘের একজন প্রাক্তন কর্মকর্তা। ২০১১ সালে তাহরির স্কোয়ারে গণবিক্ষোভে ৩০ বছরের একনায়ক হোসনি মোবারকের পতনের প্রাক্কালে ২৭ জানুয়ারী মিসরে ফিরে গিয়ে তিনি উদার-গণতন্ত্রী রূপে আবির্ভূত হন। ২০০৫ সালে তাঁকে নোবেল শান্তি পুরষ্কার দেওয়া হয়।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন