• মুর্সি-সমর্থকদের প্রতি সহিংসতাঃ মিসরের অন্তর্বতীকালীন উপ-প্রেসিডেণ্ট এলবারাদির 'পদত্যাগ'
    egypt_interim_vp_elbaradi-02.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১৪ অগাস্ট ২০১২, বুধবারঃ  মিসরের নির্বাচিত প্রেসিডেণ্ট সেনাবাহিনীর হাতে ক্ষমতাচ্যুত  হওয়ার পর উপ-প্রধানমন্ত্রী পদে নিযুক্ত মোহাম্মদ এলবারাদি কিছুক্ষণ আগে পদত্যাগ করেছেন। ইণ্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইট্যারে দ্রুত গতিতে এ-প্রসঙ্গে শতো-শতো ট্যুইট বা ক্ষুদে বার্তা প্রকাশিত হচ্ছে।

    দৃশ্যতঃ পুলিসের ব্যাপক বলপ্রয়োগে অন্ততঃ প্রায় দেড় শতাধিক ব্যাক্তি নিহত হওয়ার প্রতিবাদে এলবারাদি পদত্যাগ করেছেন। এর আগে যুক্তরাষ্ট্র পুলিসের এ-কাণ্ডকে নিন্দা করে বিবৃতি দেয়। ট্যুইটারে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে হোয়াইটহাউজের একজন মুখপাত্র জোশ আর্নেস্ট বলেছন, 'সহিংসতা মিসরকে স্থায়ী স্থিতিশীলতা ও গণতন্ত্রের পথে এগিয়ে নেয়াকে আরও কঠিন করবে কেবল'। তিনি আরও বলেন, 'আমরা কঠোরভাবে জরুরী অবস্থার ফিরে আসার বিরোধীতা করি'। 

    পদত্যাগ-পরবর্তী প্রথম প্রতিক্রিয়ায় শান্তিতে নোবেলজয়ী জাতিসঙ্ঘের প্রাক্তন এ-কর্মকর্তা বলেন, 'আরও শান্তিপূর্ণ উপায়ে সংকটের সমাধান সম্ভব ছিলো'। পদত্যাগের কারণ হিসেবে তিনি বলেন, 'যে-সিদ্ধান্তে আমার আপত্তি ছিলো তার দায়ীত্ব নিতে আমি অপারগ'।  অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেণ্ট আদলি মানসুরের কাছে লেখা পদত্যাগ পত্রে তিনি উল্লেখ করেন যে, আজ যা ঘটলো তাতে যারা সহিংসতা ও সন্ত্রাস চায় তারাই লাভবান হবে।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন