• রাজনৈতিক দল গঠন করলেন 'মণিপুরের লৌহমানবী' ইরম শর্মিলা
    irom_shormila.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি, লণ্ডন - ১৮ অক্টোবর ২০১৬, মঙ্গলবারঃ প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী রাজনৈতিক দল গঠন করেছেন 'মণিপুরের লৌহমানবী' ইরম শর্মিলা চানু। ভারত সরকারের 'নিগ্রহমূলক' বিশেষ ক্ষমতা আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদস্বরূপ তিনি দীর্ঘ ষোল বছর অনশন করেন। গত অগাষ্টে অনশন ভেঙ্গে তিনি ঘোষণা দিয়েছিলেন রাজনীতিতে প্রবেশের।

    ভারতের মণিপুর রাজ্যে সেনাবাহিনীর সন্দেহিত নিগ্রহমূল আচরণ বন্ধ ও বিশেষ ক্ষমতা আইন রদ করার দাবীতে ইরম শর্মিলা ষোল বছর ধরে অনশন পালন করেন। এই সময়কালে দেশটির সরকার তাঁর নাকে নল ঢুকিয়ে জোর করে খাবার প্রবেশ করিয়ে তাঁকে বাঁচিয়ে রেখেছিলো।

    আরও কয়েকটি রাজ্যে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অনুরূপ নিগ্রহের অভিযোগ থাকলেও, ইরমের আন্দোলনের কল্যাণে মণিপুরে পরিস্থিতি বিশ্বব্যাপী ব্যাপক প্রচার ও সহানুভূতি পেয়েছে। দু'মাস আগে অনশন ভঙ্গ করার সময় তিনি বলেছিলেন, এবার রাজনীতির মাঠে লড়বেন।

    আজ ইম্ফলের প্রেস ক্লাবে এক অনুষ্ঠানে পিপল্‌স রিসার্জেন্স এ্যাণ্ড জাষ্টিস এ্যালায়েন্স সংক্ষেপে 'প্রজা' নামের রাজনৈতিক দল গঠনের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন ৪৪ বছর বয়ষ্ক ইরম। তিনি জানান, আগামী বছর অনুষ্ঠিতব্য মণিপুর রাজ্য নির্বাচনে তাঁর দল ৬০টি আসনের মধ্যে অন্ততঃ ২০টিতে প্রার্থী দেবে। তিনি নিজে দাঁড়াবেন দু'টি আসনে, যার একটির বর্তমান এমপি হচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী ওক্রাম ইববি সিং।

    রাজনীতির মাঠেও ইরমের মূল লক্ষ্য - অর্থাৎ বিশেষ ক্ষমতা আইন রদ করা - অবিচ্যুত থাকবে। তিনি জানান, তাঁর দলের ভিত্তি হবে ন্যায়বিচারের নীতি, ভালোবাসা ও শান্তি।

    সরাসরি দলভিত্তিক রাজনীতির অভিজ্ঞতা না থাকার ঘাটতি পুষিয়ে নিতে ইতিমধ্যেই ইরম বিভিন্ন পদক্ষেপ নিতে শুরু করেছেন। দ্য হিন্দু পত্রিকা জানিয়েছে, অনশন ভাঙার পর তিনি দিল্লীর আম আদমী পার্টির নেতা অরবিন্দ কেজরিবালের সাথে দেখা করে জানতে চেয়েছেন বড়ো দলকে পরাজিত করার কৌশল সম্পর্কে।

    অনশনের ষোল বছর মণিপুরের জনগণের ভালোবাসা ও সমর্থন পেয়েছেন ইরম শর্মিলা। তাদের সেই সমর্থন রাজনীতিক শর্মিলার প্রতি অটুট থাকে তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে আগামী বছরের নির্বাচ পর্যন্ত।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন