• রাশিয়ার সাথে একীভুত হওয়ার প্রস্তাব পাস ক্রাইমিয়ার পার্লামেণ্টেঃ গণভৌট দশ দিনের মধ্যে
    ukraine_crimea_votes_to_join_russia.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ৫ মার্চ ২০১৪, বৃহস্পতিবারঃ ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে প্রতিবেশি রাশিয়া ফেডারেশনে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব পাস হয়েছে আজ দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় রুশ সংখ্যাগরিষ্ঠ ক্রাইমিয়া প্রদেশের আঞ্চলিক পার্লামেণ্টে। আগামী দশ দিনের মধ্যে প্রদেশটিতে এ-ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে একটি গণভৌট অনুষ্ঠিত হবে। খবর জানিয়েছে রয়টার্স ও বিবিসি-সহ আরও কয়েকটি সংবাদ-মাধ্যম।

    গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেণ্ট ভিক্টর ইয়ানুকোভিচকে প্রায় দু'সপ্তা আগে অপসারন  করে নতুন সরকার গঠিত হয়। কিন্তু ক্রাইমিয়া-সহ দেশটির পূর্ব ও দক্ষিণ অঞ্চলের রুশ ভাষাভাষী কিছু অঞ্চল নতুন কর্তৃপক্ষকে মেনে নিতে অস্বীকার করে। এ-নিয়ে একদিকে যুক্তরাষ্ট্র-ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং অন্যদিকে রাশিয়ার মধ্যে চলমান কুটনৈতিল সঙ্কটের মধ্যে আজ ক্রাইমিয়ার সংসদ এ-সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

    ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাথে প্রস্তাবিত একটি মুক্ত-বাণিজ্য চুক্তি না করে রাশিয়ার কাছ থেকে অর্থ-সাহায্য নেওয়ার কারণে গত বছরের নভেম্বর মাস থেকে ইয়ানুকোভিচের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু করে ইউরোপন্থীরা। তাদের মধ্যে সবচেয়ে মারমুখী অবস্থানে ছিলো রাইট সেক্টরের মতো উগ্র ডানপন্থী জাতীয়তাবাদী সংগঠনগুলো। ঐতিহাসিকভাবে এদেরকে জার্মানীর নাৎসী বাহিনীর সাথে আঁতাতকারী বলে অভিযোগ রয়েছে।

    রাজধানী কিয়েভের অনির্বাচিত নতুন কর্তৃপক্ষ ক্ষমতা গ্রহণ করে তড়িঘড়ি করে ভাষা সম্পর্কিত একটি আইন বাতিল করে। এর ফলে রুশ-সহ সকল সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর ভাষা আঞ্চলিক রাষ্ট্র-ভাষার মর্দাযা প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হয়। কিয়েভের উগ্র জাতীয়তাবাদীদের 'রুশ ও ইহুদি' নির্মূল করার অঙ্গীকার প্রচারিত হতে শুরু করলে, পূর্ব ও দক্ষিণের রুশ-প্রধান অঞ্চলগুলোতে রাজনৈতিক অস্থিরতা শুরু হয়। এর মাঝে ক্রাইমিয়া কিয়েভের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করে বসে রাশিয়ার কাছে নিরাপত্তার আবেদন জানায়।

    এ-পরিস্থিতিতে রুশ পার্লামেণ্ট প্রেসিডেণ্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে 'প্রয়োজন হলে ইউক্রেনে সেনা পাঠানোর অনুমতি' দিলে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্রের সাথে রাশিয়ার দ্বন্দ্ব প্রকাশ্য রূপ নেয়। পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভ্রভ দাবি করেন, ক্রাইমিয়ার রুশ ভাষাভাষীদের মানবাধিকার রক্ষার্থে রাশিয়া সম্ভাব্য সব কিছু করবে। উল্লেখ্য, ক্রাইমিয়ায় রাশিয়ার একটি গুরুত্বপূর্ণ নৌঁঘাটি রয়েছে যেখানে দেশটির নৌবাহিনীর ব্ল্যাক ফ্লীট অবস্থিত।

    রাশান ফেডারেশন রাষ্ট্রে যুক্ত হবার প্রস্তাবে তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্র। আজ মার্কিন প্রেসিডেণ্ট বারাক ওবামা বলেছেন, "ক্রাইমিয়ার ভবিষ্যতের ব্যাপারে প্রস্তাবিত গণভৌট ইউক্রেনীয় সংবিধান ও আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন।" তিনি আরও বলেন, ইউক্রেনের ভবিষ্যৎ সংক্রান্ত যেকোনো আলাপে ইউক্রেনের বৈধ সরকারকে রাখতে হবে।

    কিয়েভের নতুন পশ্চিমা-সমর্থিত সরকারকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্র দেশটির বৈধ সরকার বলে স্বীকৃতি দিয়েছে। অন্যদিকে রাশিয়া বলছে, বলপ্রয়োগের মাধ্যমে নির্বাচিত প্রেসডেণ্টকে হটিয়ে ক্ষমতায় আসা সরকার অবৈধ। এ-সরকারের অধীনে অনুষ্ঠিতব্য মে মাসের নির্বাচনকেও রাশিয়া স্বীকৃতি দিবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন