• রুশ ফেডারেশনের 'ইতিহাসে বৃহত্তম' সামরিক অনুশীলনঃ সেনা ও অস্ত্রের যুদ্ধ-প্রস্তুতি পরীক্ষা
    russia_largest_military_drill_2014.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৪, মঙ্গলবারঃ সোভিয়েত-পরবর্তী রাশিয়ার ইতিহাসে বৃহত্তম সামরিক অনুশীলন শুরু হয়েছে গত ১৯ তারিখে। আজ রুশ বার্তা-সংস্থাগুলো জানিয়েছে, এর মধ্য দিয়ে জল-স্থল-অন্তরীক্ষে দেশটির সমর-প্রস্তুতি পরীক্ষা করা হচ্ছে।

    বার্তা সংস্থা ইথার-তাশ জানিয়েছে, আগামী ২৫ তারিখে সমাপ্ত হবে 'ভোস্তোক-২০১৪' নামের ৬ দিনের এ-সামরিক অনুশীলন। এতে অংশ নিচ্ছে প্রায় এক লাখ সৈন্য, ১,৫০০টি ট্যাঙ্ক, ১২০টি যুদ্ধবিমান, ৫,০০০ বিশেষ যুদ্ধাস্ত্র এবং ৭০টি যুদ্ধজাহাজ। ১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙ্গে যাওয়ার পর রাশিয়ার এতো বড়ো সমর-ক্রীড়া আর অনুষ্ঠিত হয়নি।

    অনুশীলনের অংশ হিসেবে নৌবাহিনী পরীক্ষা করেছে জল ও স্থল আক্রমণ থেকে উপকূল প্রতিরক্ষা, নাশকতা প্রতিরোধ, মাইন নিষ্ক্রিয়করণ ইত্যাদি। নিয়মিত অনুশীলনের বাইরে রুশ বিমানবাহিনী নিন্ম-উচ্চতার ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র আক্রমণ ঠেকাতে মিগ-৩১ ইণ্টারসেপ্টরের ব্যবহার সফলভাবে পরীক্ষা করেছে।

    স্থলবাহিনীর অনুশীলনের মধ্যে অন্যতম ব্যাপার ছিলো এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার কার্যকারিতা যাচাই করা। আরটি টেলিভিশন জানিয়েছে লক্ষ্য নিশ্চিহ্ন এ-ব্যবস্থাটির সকল প্রস্তুতি করতে সময় লাগে মাত্র ১৫ সেকেণ্ড। এছাড়াও অন্ততঃ ১০,০০০ টন খাদ্য, জ্বালানী, গোলাবারুদ ইত্যাদি রসদ সরবরাহেরও অনুশীলন করা হচ্ছে, যা কোনও কোনও ক্ষেত্রে কয়েক হাজার কিলোমিটার দূর পর্যন্ত পরিবাহিত হবে।

    প্রতিবেশি ইউক্রেনে ভয়াল গৃহযুদ্ধ এবং সেটিকে কেন্দ্রে করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্রের সাথে রাশিয়ার সম্পর্কের ক্রমাবনতির মাঝে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ভোস্তোক-২০১৪। ভোস্তোক-২০১৪ বৃহত্তম হলেও সাম্প্রতিক সময়ে এটিই একমাত্র বড়ো আকারের সামরিক অনুশীলন নয়। এ-বছরের শুরু থেকেই রুশ সেনা-কমাণ্ডের পশ্চিম, পূর্ব ও কেন্দ্রীয় অঞ্চলগুলোতে একাধিক বৃহৎ সমর-ক্রীড়া  অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন