• সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংস-প্রক্রিয়া শুরুঃ আসাদের প্রশংসা কেরির
    syria_opcw_begins_work.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ৭ অক্টোবর ২০১৩ সোমবারঃ  জাতিসঙ্ঘে গৃহীত একটি প্রস্তাবের আওতায় সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংস করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে  গতকাল। অর্গানাইজেশন ফর দ্য প্রোহিবেশন অফ কেমিক্যাল উইপন্স (ওপিসিডব্লিউ)-এর তত্ত্বাবধানে চলছে এ-কাজ।

    গত ২১ অগাস্ট গৃহযুদ্ধে বিধ্বস্থ সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের কাছে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের সংবাদ ইণ্টারনেটে প্রচারিত হয়। ব্রিটেইন-ভিত্তিক বিদ্রোহী-সমর্থক সংগঠন সিরিয়ান অবজার্ভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস দাবি করেছে, এতে ৩২২ জন ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেণ্ট বলেছেন অন্ততঃ ১,৪০০ ব্যক্তি মারা গিয়েছেন রাসায়নিক-হামলায় এবং এর জন্য প্রেসিডেণ্ট বাশার আল-আসাদ দায়ী। আসাদ এ-অভিযোগ অস্বীকার করে এ-ঘটনার জন্য আল-কায়েদা যোদ্ধা সমন্বয়ে গঠিত বিদ্রোহীদেরকে দায়ী করেছেন, তাঁকে সমর্থন করেছে রাশিয়া।

    সে-পরিস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স ইত্যাদি পশ্চিমা দেশের জোট সিরিয়ায় হামলা চালাতে প্রায়-প্রস্তত অবস্থায় পৌঁছে যায়, যখন রাশিয়ার হস্তক্ষেপে আসাদ সম্মত হন রাসায়নিক অস্ত্র ত্যাগ করতে। যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়ার মধ্যে সম্পাদিত এক সমঝোতার আওতায় সিরিয়া আন্তর্জাতিক রাসায়নিক অস্ত্র নিরোধ সংস্থায় যোগ দিয়ে তার হাতে তুলে দেয় তার রাসায়নিক অস্ত্র-তালিকা।

    অস্ত্র ধ্বংসের জন্য জাতিসঙ্ঘ ও অপিসিডব্লিউ-র এক যৌথ দল এ-মুহূর্তে সিরিয়ার অবস্থান করছে।তাদের একজন মুখপাত্র গতকাল বলেছেন, "অস্ত্র-ধ্বংসের প্রথন দিন শেষ হয়েছে এবং ক্ষেপণাস্ত্র, বোমা, মিশ্রন ও পরিপূরণ যন্ত্র ইত্যাদির ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।" তারা জানান, আগামী কয়েকদিন তাঁদের কাজ অব্যাহত থাকবে।

    এদিকে, আসাদের বিরুদ্ধে দু-সপ্তা আগেও ঘন-ঘন অত্যন্ত কঠোর বক্তব্য দানকারী মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রী জন কেরি গতকাল বাশার আল-আসাদের প্রশংসা করেছেন। ইন্দোনেশিয়ার বালি শহরে একটি অর্থনৈতিক সম্মেলনে অংশগ্রহণ করছেন তিনি। কেরি বলেন, "আমার মনে হয়, দ্রুত [চুক্তি] মান্য করার কৃতিত্ব সিরিয়ার সরকারের পাওনা।...এটি একটি শুভ সূচনা এবং আমাদের উচিত শুভ-সূচনাকে স্বাগত জানানো"।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন