• স্কটল্যাণ্ডের স্বাধীনতায় গণভৌটঃ ব্রিটিশ সরকারের সাথে স্কটিশ পার্লামেন্টের দ্বন্দ্ব
    Cameron-and-Salmond.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১০ জানুয়ারী ২০১২, মঙ্গলবারঃ  ব্রিটেইনের সরকারের সাথে স্কটিশ জাতীয়তাবাদীদের বিরোধ শুরু হয়েছে স্কটল্যাণ্ডের স্বাধীনতার প্রশ্নে গণভৌট কখন হবে, কী প্রশ্নে হবে এবং কার কর্তৃত্ব হবে - বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেইভিড ক্যামেরোন অভিমতকে চ্যালেঞ্জ করে বক্তব্য দিয়েছেন স্কটিশ ফার্স্ট মিনিস্টার এ্যালেক্স স্যামণ্ড। 

    প্রধানমন্ত্রী ডেইভিড ক্যামেরোন বলেছেন, যুক্তরাজ্যের মধ্যে থাকা স্কটল্যাণ্ড-সহ সবার জন্যই মঙ্গলকর। তিনি বলেন, পৃথক হবার চেয়ে একত্রে থাকলেই বরং উত্তম। তবে, তিনি স্কটল্যাণ্ডের স্বাধীনতার প্রশ্নে গণভৌট প্রসঙ্গে মনে করেন, এটিকে হতে হবে ন্যায্য, দ্রুত ও সিদ্ধান্তমূলক এবং এর জন্য প্রয়োজনীয় ক্ষমতা স্কটিশ পার্লামেন্টের হাতে ন্যস্ত করা হবে। ডেইভিড ক্যামেরোন মনে করেন, গণভৌটে প্রশ্ন থাকবে একটিঃ স্কটল্যাণ্ড কি যুক্তরাজ্য থাকতে চায়, নাকি স্বাধীন হতে চায়। ইতোপূর্বে তিনি ‘আগামী ১৮ মাসের মধ্যে’ গণভৌট অনুষ্ঠিত হওয়া উচিত বলে বিতর্কের সৃষ্টি করেছেন, যা স্কটিশ পার্লামেন্টের ফার্স্ট মিনিস্টারের মুখপাত্র ‘সাংঘাতিক হস্তক্ষেপ’ বলে আখ্যায়িত করেছেন।   

    স্কাই টিভির সাথে মঙ্গলবারে সাক্ষাতকারে স্কটিশ পার্লামেন্টের ফার্স্ট মিনিস্টার এ্যালেক্স স্যামণ্ড জানিয়েছেন, আগামী ২০১৪ সালের শরৎকালে স্কটল্যাণ্ডের স্বাধীনতা বিষয়ে গণভৌট অনুষ্ঠিত করতে চান। স্যামণ্ড বলেন, ‘স্কটল্যাণ্ডের ৩০০ বছরের ইতিহাসে গুরুত্বপূর্ণতম সিদ্ধান্তটির বিষয়ে এই তারিখটি আমাদের সবকিছু যথাযথভাবে উপস্থাপন করতে অনুমোদন করে’। তিনি আরও বলেন, ‘এটি হবে একটি গণভৌট যা স্কটল্যাণ্ডে নির্মিত, স্কটল্যাণ্ডে প্রস্তুত এবং যা স্কটিশ পার্লামেন্টের মধ্য দিয়ে যাবে’। তাঁর মতে, গণভৌট ২০১৪ সালে হলে স্কটল্যাণ্ডবাসী স্বাধীনতার পক্ষে বিপক্ষের সমস্ত যুক্তিগুলোই বিবেচনার সময় পাবেন।

    এদিকে দৈনিক গার্ডিয়ান জানায়, স্কটিশ সেক্রেট্যারী মাইকেল মুর নিশ্চিত করেছেন যে, ‘যুক্তরাজ্য সরকারের আইনী পরামর্শ হচ্ছে যে, বর্তমানে কোন আকারের গণভৌট অনুষ্ঠিত করার কোনো আইনগত কর্তৃত্ব নেই স্কটিশ পার্লামেন্টের, তা তারা যতোই বলুক এ-গণভৌট কেবলই নির্দেশনামূলক’।

    ব্রিটিশ সরকার অবস্থান চ্যালেইঞ্জ করে এ্যালেক্স স্যামণ্ডের প্রধান মুখপাত্র বলেন, তাঁরা সম্পূর্ণ প্রত্যয়ী যে, পরামর্শ বা পর্যালোচনামূলক গণভৌট অনুষ্ঠিত করার অধিকার স্কটিশ পার্লামেন্টের তৈরী হয়েই আছে। তবে তিনি বলেন, স্কটিশ পার্লামেন্টকে সুস্পষ্ট ভাবে সে-ক্ষমতা দেবার যে-প্রস্তাব ডেইভিড ক্যামেরোন করছেন, তা তাঁরা গ্রহণ করবেন যদি ‘না তার সাথে শর্ত যুক্ত থাকে’। তিনি আরও বলেন, ‘গণভৌটের শর্তসমূহ যুক্তরাজ্যের সরকারের দ্বারা নির্ধারিত হবে নাঃ সে-সমস্ত দিন ফুরিয়ে গেছে’।

    উল্লেখ্য, গ্রেইট ব্রিটেইনের সদস্য দেশ স্কটল্যাণ্ড তার ভবিষ্যত নির্ধারণ করতে পারবে, এ-নীতির ভিত্তিতে স্কটিশ পার্লামেন্ট প্রতিষ্ঠার প্রশ্নে স্কটল্যাণ্ডবাসীর ইতিবাচক রায় প্রকাশিত হয় ১৯৯৭ সালের গণভৌটে। লেবার পার্টির নেতৃত্বাধীন ব্রিটিশ পার্লামেন্টে পাস-হওয়া ‘স্কটল্যাণ্ড এ্যাক্ট ১৯৯৮’ আইনের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠিত হয় স্কটিশ পার্লেমেন্ট ১৯৯৯ সালে।

    স্বাধীনতার প্রশ্নে মুখর স্কটিশ ন্যাশনালিস্ট পার্টি তার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অংশ হিসেবে স্কটল্যাণ্ডের স্বাধীনতার প্রশ্নে গণভৌট অনুষ্ঠিত করতে চায়, যা সে পারেনি দ্বিতীয় পার্লামেন্টে তার সংখ্যাগরিষ্ঠ অবস্থান না-থাকার কারণে। গত বছর স্কটিশ পার্লামেন্টের ৪র্থ নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের পর স্কটিশ পার্লেমেন্টের নেতা ও ফার্স্ট মিনিস্টার এ্যালেক্স স্যামণ্ড বলেছিলেন, পার্লামেন্টের চার-বছর মেয়াদের মাঝামাঝিতে অনুষ্ঠিত হবে স্কটল্যাণ্ডের স্বাধীনতার প্রশ্নে গণভৌট - অর্থাৎ ২০১৪ সালে।

    ২০১৪ সাল হচ্ছে ঐতিহাসিক ব্যাটল অফ ব্যানকবার্ন ৭০০তম বার্ষিকী। ১৩১৪ সালের ২৪ জুনে অনুষ্ঠিত এ-যুদ্ধে রবার্ট দ্য ব্রুস ইংল্যাণ্ডের রাজা এ্যাডওয়ার্ড দ্বিতীয়কে পরাজিত করে, যা স্কটল্যাণ্ডের ‘প্রথম স্বাধীনতার যুদ্ধ’ হিসেবে খ্যাত। প্রধানমন্ত্রী ডেইভিড ক্যামেরোন মনে করেন, ২০১৪ সালে গণভৌটের তারিখ নির্ধারণের মাধ্যমে এ্যালেক্স স্যামণ্ড স্কটিশ জাতীয়তাবাদী চাগিয়ে দিয়ে সুবিধা অর্জন করতে চান।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন