• হেফাজতের দাবি ৩ হাজার নিহত, সরকার বলছে সত্য নয়
    bd_motijheel_hefajot_evacuated.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ৭ মে ২০১৩, মঙ্গলবারঃ  ঢাকার মতিঝিলে অবস্থানরত হেফাজতে ইসলামের কর্মীদেরকে হটাতে গতকাল ভোররাতে যে সাঁড়াশি অভিযান পরিচালিত করেছে পুলিস-র‍্যাব-বিজিবির সম্মিলিত দল, এতে ৩ হাজার ব্যক্তি নিহত হওয়ার দাবি করেছে সংগঠনটি। অপর দিকে দেশটির সরকার বলছে, এ-দাবি সত্য নয়।

    হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা জাফরুল্লাহ খানের পাঠানো বিবৃতিতে বলা হয়, 'প্রায় তিন হাজার শহীদ এবং ১০ হাজারেরও বেশি আহত হন'। তিনি আরও দাবি করেন, 'লাশ আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা ট্রাকে করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়'।

    বাংলাদেশের সংসদে বিরোধী-দল বিএনপিও দাবি করেছে, সরকার হেফাজতের কর্মীদের লাশ গুম করেছে। দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম কে আনোয়ার বলেন, 'রোববার রাতে শাপলা চত্বরের সব বিদুৎ সংযোগ বন্ধ করে দিয়ে ভুতুড়ে পরিবেশ সৃষ্টি করে ধর্মপ্রাণ আলেম-উলামা-মুসল্লিদের ওপর নির্বিচারে গুলিবর্ষণ করেছে। অনেক লাশ গুম করা হয়েছে'। আরেক নেতা সাদেক হোসেন খোকা বলেন, 'হত্যাকাণ্ডের সংখ্যা সহস্রাধিক হতে পারে'।

    তবে সরকার এ-সকল দাবি নাকচ করে দিয়েছে। স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু বিরোধী দলকে মিথ্যাচার করার পাল্টা অভিযোগে অভিযুক্ত করে সাংবাদিকদেরকে বলেন, 'গুম হওয়া লাশের তালিকা দিতে বলুন'। তিনি আরও বলেন, 'সংঘর্ষের কারণে মানুষের মৃত্যুর জন্য উস্কানিদাতাদেরও বিচারের আওতায় আনা হবে'।

    এদিকে হংকং ভিত্তিক একটি মানবাধিকার সংস্থা এশিয়ান হিউম্যান রাইটস কমিশন ঢাকায় পুলিসী অভিযানে হেফাজতের কর্মীদের উচ্ছেদে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। সংস্থাটির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, হেফাজতে ইসলামের ১৩ দফার সাথে একমত না হলেও সকলের প্রতিবাদ জানানোর অধিকারের ব্যাপারে তারা উদ্বিগ্ন।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন