• ৪০ হাজার মদাসক্ত ইনক্যাপাসিটি বেনিফিট নিচ্ছেনঃ চিকিৎসা না নিলে অধিকার হারাবেন
    Ducan-Smith.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ২২ মে ২০১২, মঙ্গলবারঃ  ওয়্যার্ক এ্যাণ্ড পেনসন ডিপার্টমেন্টের প্রকাশিত তথ্য-বিশ্লেষণে জানা যায়, ইনক্যাপাসিটি বেনিফিট দাবীকারী ৪০ হাজার বেকারের ঘোষিত প্রাথমিক সমস্যা হচ্ছে মদাসক্তি, যাঁরা চিকিৎসা গ্রহণ করতে অস্বীকার করলে আগামী বছরে প্রবর্তিব্য নতুন বেনিফিট পদ্ধতির নিয়মানুসারে বেনিফিট হারাবেন।

    আজ দৈনিক গার্ডিয়ান অগ্রীম প্রাকাশিত এক সংবাদ-প্রতিবেদনে জানায়, অ্যালকোহলিক্স অ্যানিনোমাস নামের একটি সংগঠনের একটি অনুষ্ঠানে আগামী কাল পার্লামেন্টে ওয়্যার্ক এ্যাণ্ড পেনসন সেক্রেট্যারী ইয়ান ডানক্যান স্মিথ তাঁর দেয় বক্তৃতায় এই মর্মে ইঙ্গিত দিবেন যে, আগামী বছরের অক্টোবর থেকে প্রবর্তিব্য নতুন ও সমন্বিত বেনিফিট ‘ইউনিভার্স্যাল ক্রেডিট’ দাবীকরদেরকে একটি চুক্তি সই করতে হবে, যা লঙ্ঘিত হলে তাঁরা বেনিফিট-বঞ্চিত হবেন।

    ডানক্যান স্মিথ বলবেন, যে-বেকারগণ মদাসক্ত অথচ আসক্তি থেকে মুক্তি-লাভের জন্য চিকিৎসা নিচ্ছেন না কিংবা নিতে চাচ্ছেন না, তাঁরা চুক্তিভঙ্গের দায়ে তাঁদের বেনিফিট অধিকার হারাবেন।

    উল্লেখ্য, বর্তমানে বিভিন্ন প্রকারের বেনিফিটকে সমন্বিত করে ডানক্যান স্মিথ তাঁর ‘কস্ট-কাটিং ওয়েলফেয়া’ বা ‘ব্যয়-সাশ্রয়ী কল্যাণ’ পরিকল্পনার অধীনে একটি মাত্র বেনিফিট প্রবর্তন করবেন, আর এর নাম হবে ‘ইউনিভার্স্যাল ক্রেডিট’।

    ডানক্যান স্মিথের মন্ত্রণালয়ের তথ্য-বিশ্লেষণ অনুসারে বর্তমানের ইনক্যাপাসিটি বেনিফিট দাবীকর ৪০,০০০ মদাসক্ত ব্যক্তির মধ্যে ১৩,৫০০ এক দশক বা তারও বেশি কাল ধরে বেনিফিট-নির্ভর হয়ে আছেন।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন