• ‘কী ভাবতে ও করতে হবে তা লণ্ডন থেকে বলে দেবার দিন শেষ’ - এ্যালেক্স স্যামণ্ড
    Alex-Salmond.jpg

    ইউকেবেঙ্গলি - ১০ মার্চ ২০১২, শনিবারঃ  স্কটল্যাণ্ডের ফার্স্ট মিনিস্টার ও স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টির নেতা এ্যালেক্স স্যামণ্ড আজ স্কটল্যাণ্ডে অনুষ্ঠিত তাঁর দলের বসন্ত-কালীন সম্মেলনে বলেন, ওয়েস্টমিনস্টার থেকে স্কটল্যাণ্ডকে শাসন করার দিন আর নেই, তাই স্কটল্যাণ্ডবাসীকে তাদের নিজস্ব শাসন - অর্থাৎ, স্বাধীনতা - আলিঙ্গন করতে হবে।

    গ্লাসগৌতে অনুষ্ঠিত দু-দিনের এ-সম্মেলনে এসএনপি-নেতা স্যামণ্ড বলেন, আগামী ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিতব্য গণভৌটে স্কটল্যাণ্ডবাসীকে ইংল্যাণ্ড থেকে পরিচালিত কেন্দ্রীয় শাসন ও স্কটল্যাণ্ডের নিজস্ব শাসন - এই দুয়ের মধ্যে একটি বেছে নেবার কঠিন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে।

    তিনি বলেন, ‘এটি আমাদের আশার বারতা যে, স্কটল্যাণ্ডের দায়িত্ব জনগণের হাতে নিয়ে, আমাদের নিজস্ব কণ্ঠে কথা কয়ে, আমাদের নিজস্ব মূল্যবোধ ও অগ্রাধিকারের প্রতিফলন ঘটিয়ে, আমরা আমাদের দেশকে অধিকতর উন্নত করতে পারবো।’

    দু-মাস পর অনুষ্ঠিতব্য স্কটল্যাণ্ডের বৃহত্তম নগরী গ্লাসগৌর সিটি কাউন্সিল নির্বাচনে লেবার দলের হাত থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে নেবার ইঙ্গিত করে স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টির নেতা বলেন, ‘সর্বজনাব ক্যামেরোন, ক্লেগ ও মিলিব্যাণ্ডের প্রতি বার্তা’ এই যে, ‘স্কটল্যাণ্ডকে কী করতে ও ভাবতে হবে তা লণ্ডন থেকে বলে দেবার যেদিনগুলো রাজনীতিকদের ছিলো, সেদিনগুলো ফুরিয়ে গেছে।’

    সম্মেলনে স্কটল্যাণ্ডের কর্মহীন যুবজনের সাহায্যের জন্য নতুন ৫ মিলিয়ন পাউণ্ডের একটি প্যাকেইজ ঘোষণা করে ফার্স্ট মিনিস্টার স্যামণ্ড বলেন, ‘আগামী তিন বছরে যে-সকল জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করার সুযোগ স্কটল্যাণ্ডের আছে, সে-অনুষ্ঠানগুলোর স্বেচ্ছাকর্মে যুবজনদের জড়িত করার সুযোগ তৈরী করে দেবে’ এই কর্মসূচি। তিনি এই কর্মসূচিকে কর্মহীন ‘২,৫০০ যুবজনের জন্য সঠিক সহায়তা’ বলে উল্লেখ করেন।

    উল্লেখ্য, স্কটল্যাণ্ডের শাসন ক্ষমতায় নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করার পর এ্যালেক্স স্যামণ্ডের নেতৃত্বাধীন স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টি এক বছরেরও কম সময়ের মধ্যে আজ গ্লাসগৌতে দু-দিন ব্যাপী সম্মেলন শুরু করলো।

আপনার মন্তব্য

এই ঘরে যা লিখবেন তা গোপন রাখা হবে।
আপনি নিবন্ধিত সদস্য হলে আপনার ব্যবহারকারী পাতায় গিয়ে এই সেটিং বদল করতে পারবেন